Page 1 of 1

ইতিহাসের স্মরণীয় যুদ্ধ: পার্ট-০২

Posted: Mon Oct 19, 2020 12:11 pm
by tumpa
ওয়াটার লু যুদ্ধ
ওয়াটার লু বেলজিয়ামের ব্রাসেলস থেকে ১১ মাইল দূরে অবস্থিত একটি ঐতিহাসিক স্থান। এটি একটি যুদ্ধক্ষেত্র। ফ্রান্সের সম্রাট নেপোলিয়ন ব্রিটেনের কাছে পরাজিত হলে তাকে ভূমধ্যসাগরীয় দ্বীপ সেন্ট এলবায় নির্বাসন করা হয়। কিন্তু নেপোলিয়ান সেখান থেকে পলায়ন করে ফ্রান্সে প্রবেশ করেন এবং পুনরায় সেনাবাহিনী একত্রিত করে লিঙ্গির যুদ্ধে অবতীর্ণ হয়ে রুশ্যারকে পরাজিত করেন। ১৮১৫ সালে বেলজিয়ামের ওয়াটার লুতে ব্রিটিশ সেনাপতি আর্থার ওয়েসলির সাথে ঐতিহাসিক ওয়াটার লু যুদ্ধে অবতীর্ণ হন। যুদ্ধে নেপোলিয়ান শোচনীয়ভাবে পরাজিত হন এবং তাকে সেন্ট হেলেনা দ্বীপে নির্বাসনে দেওয়া হয়। এই দ্বীপে ১৮২১ সালে তার জীবনাবসান হয়।
ক্রিমিয়াম যুদ্ধ
১৮৫৪-১৮৫৬ পর্যন্ত ফ্রান্স, ইংল্যান্ড ও তুরস্কের যৌথ বাহিনীর সাথে রাশিয়ার যে যুদ্ধ হয়, তাই ক্রিমিয়াম যুদ্ধ। এই যুদ্ধে রাশিয়া পরাজিত হয়। ২০১৪ সালে রাশিয়া ইউক্রেন থেকে ক্রিমিয়া দখল করে নেয়।
আমেরিকার গৃহযুদ্ধ
১৮৬১ থেকে ১৮৬৫ সাল পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের ১১টি সাউদার্ন স্টেটস ও নর্দান ফেডারেল স্টেটসের মধ্যে গৃহযুদ্ধ সংঘটিত হয়। এ সময় ১৮৬৩ সালে আবরাহাম লিংকন দাস প্রথা বিলোপ করেন। যুদ্ধে উত্তরের রাজ্যগুলো জয়ী হয়। এটি গেটিসবার্গ যুদ্ধ নামেও পরিচিত।
প্রথম চীন-জাপান যুদ্ধ
১৮৯৪-৯৫ সালে কোরিয়ার প্রশ্নে জাপানের সাথে চীনের এ যুদ্ধ সংগঠিত হয়। এ যুদ্ধে জয়ী হলে ফরমোজা ও কোরয়া জাপানের হস্তগত হয়।
দ্বিতীয় চীন-জাপান যুদ্ধ
১৯৩১-১৯৩৩ সালে মাঞ্চুরিয়াকে কেন্দ্র করে এ যুদ্ধ সংগঠিত হয়। এ যুদ্ধে জয়লাভ করে জাপান চীনের কাছ থেকে মাঞ্চুরিয়া দখল করে এবং মাঞ্চুকুয়ো নামে রাজ্য ঘোষণা করে।
কোরিয়া যুদ্ধ
১৯৫০-১৯৫৩ সাল পর্যন্ত উত্তর কোরিয়া ও দক্ষিণ কোরিয়া মধ্য এই যুদ্ধ সংগঠিত হয়। ১৯৫৩ সালে জাতিসংঘের মধ্যস্থতায় এই যুদ্ধের অবসান হয়।
ভিয়েতনাম যুদ্ধ
১৯৫৫ সালে উত্তর ও দক্ষিণ ভিয়েতনামের মদ্যে এ যুদ্ধ শুরু হয়। উত্তর ভিয়েতনামের পক্ষে চীন ও সোভিয়েত ইউনিয়ন এবং দক্ষিণ ভিয়েতনামের পক্ষে যুক্তরাষ্ট্র যুদ্ধে অবতীর্ণ হয়। যুদ্ধে উত্তর ভিয়েতনাম জয়লাভ করে। ১৯৭৩ সালে প্যারিস চুক্তির মাধ্যমে ১৯৭৫ সালে যুদ্ধ বিরতি কার্যকর হয়। ১৯৭৬ সালে দুই ভিয়েতনাম একত্রিত হয়ে যায়।
আরব-ইসরাইল যুদ্ধ
আরব ইসরাইল যুদ্ধ হয় চারবার – ১৯৪৮, ১৯৫৬, ১৯৬৭, এবং ১৯৭৩ সালে।
প্রথম আরব-ইসরাইল যুদ্ধ
১৯৪৮ সালে স্বাধীন ফিলিস্তিনের বুকে ইসরাইল রাষ্ট্রের জন্ম হয় । জেরুজালেম নগরীটি ছিল আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষণে। কিন্তু রাষ্ট্র হিসেবে আবিরর্ভুত হওয়ার পরপরই ইসরাইল অবৈধভাবে জেরুজালেম নগরীকে করতলগত করার লক্ষ্যে আক্রমণ চালায়। এতে মধ্যপাচ্যের মুসলিম দেশগুলো ইসরাইলের বিরূদ্ধে যুদ্ধে লিপ্ত হয়।
দ্বিতীয় আরব ইসরাইল যুদ্ধ
১৯৫৬ সালে মিশর সুয়েজ খাল জাতীয়করণ করলে মিশরের বিরূদ্ধে ইসরাইল যুদ্ধ ঘোষণা করে। ফ্রান্স ও ব্রিটেন ইসরাইলকে সহায়তা করে। রাশিয়ার হুমকিতে ইসরাইল যুদ্ধ বিরতি মেনে নেয়।
তৃতীয় আরব ইসরাইল যুদ্ধ
এই যুদ্ধ১৯৬৭ সালে সংগঠিত হয়। এই যুদ্ধ মাত্র ৬দিন ছিল। এই যুদ্ধে ইসরাইল জেরুজালেমের বিরাট অংশ দখল করে নেয়।
চতুর্থ আরব ইসরাইল যুদ্ধ
১৯৭৩ সালে সংগঠিত চতুর্থ আরব ইসরাইল যুদ্ধের স্থায়ীত্ব ছিল মাত্র ১৮ দিন। এই যুদ্ধে মধ্যপ্রাচ্যের মুসলিম দেশগুলো প্রথমবারের মতো পশ্চিমাদের বিরূদ্ধে তেল অস্ত্র আরোপ করে।