Get on Google Play

আর্ন্তজাতিক বিষয়ক সাধারণ জ্ঞান
#3558
আরব লিগ (League of Arabic States)
আরব লিগ প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯৪৫ সালে।
আরব লিগের সদর দপ্তর মিশরের কায়রোয়।
১৯৭৯ -১৯৯০ পর্যন্ত আরব লীগের সদরদপ্তর ছিল তিউনেশিয়ার তিউনিসে।
আরব লিগের মহাসচিব মিশরের আহমেদ আবুল ঘেইত।
মধ্যপ্রোচ্যের দেশ ইরান এবং ইসরাইল আরব লিগের সদস্য নয়।
আরব লিগের সদস্য ২২ টি-সৌদি আরব, ইরাক, কুয়েত, কাতার, বাহরাইন, ইয়েমেন, ওমান, সিরিয়া, লেবানন, জর্ডান, ফিলিস্তিন, মিশর, লিবিয়া, আলজেরিয়া, তিউনিশিয়া, মরক্কো, জিবুতি, সুদান, কমারোস, ও সোমালিয়া।
মধ্যপ্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকার দেশগুলোই আরব লিগের সদস্য।
আরব লিগের পর্যবেক্ষক দেশ ভারত, ব্রাজিল, ভেনিজুয়েলা, ইরিত্রিয়া।
বর্তমানে সিরিয়ার সদস্যপদ বাতিল হয়েছে।
আরব লিগের সর্বশেষ সদস্য কমোরস।
সর্বশেষ সম্মেলন হয় সৌদি আরবের দাহরানে ২০১৮ সালে এবং পরবর্তী সম্মেলন হবে তিউনিশিয়ার তিউনিসে (২০১৯) ।
সার্ক (SAARC)
পূর্ণ রূপ: South Asian Association for Regional Co-operation.
প্রতিষ্ঠাকাল: ১৯৮৫।
বর্তমান সদস্য: ৮ টি – বাংলাদেশ, ভারত, শ্রীলঙ্কা, নেপাল, ভুটান, মালদ্বীপ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তান।
সার্কের সর্বশেষ সদস্য আফগানিস্তান।
সার্ক সচিবালয় নেপালের কাঠমান্ডতে।
সার্কের প্রথম মহাসচিব আবুল আহসান (বাংলাদেশ)।
সার্কের অষ্টাদশ বা সর্বশেষ সম্মেলন হয় ২০১৪ সালে নেপালের কাঠমান্ডতে এবং ১৯ তম সম্মেলন পাকিস্তানের ইসলামাবাদে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও তা বাতিল হয়ে যায়। ২০ তম সার্ক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে শ্রীলঙ্কার কলম্বোয় ২০১৯ সালে।
সার্কভুক্ত দেশ আফগানিস্তানে সার্কের কোনো সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়নি।
SAPTA চুক্তি স্বাক্ষরিত হয় ১৯৯৩ সালে এবং কার্যকর হয় ১৯৯৫ সালে।
SAPTA চুক্তি স্বাক্ষরিত হয় ২০০৪ সালে এবং কার্কর হয় ২০০৬ সালে।
সার্কের বর্তমান মহাসচিব পাকিস্তানের আমজাদ হোসেন।
সার্কভুক্ত দেশের মধ্যে আফগানিস্তানের শিক্ষার হার সবচেয়ে কম এবং মাথাপিছু আয়ও সবচেয়ে কম।
সার্কভুক্ত দেশের মধ্যে শিক্ষার হার এবং মাথাপিছু আয় সবচেয়ে বেশি হলো মালদ্বীপের।
সার্কের প্রথম নারী মহাসচিব মালদ্বীপের ফাতিমা দিয়ানা সাঈদ।
সার্কভূক্ত দেশ নেপাল ও ভুটানের সামরিক বাহিনী নেই।
সার্ক বিদ্যালয় অবস্থিত ভারতের নয়াদিল্লিতে।
১৯৯১ সালে এশিয়ার দারিদ্র্য দূরীকরণের জন্য একটি সার্ক কমিশন গঠন করা হয়েছিল।
সার্কের সহযোগীতার ক্ষেত্র ১৩ টি।
সার্কের প্রথম সম্মেলন হয় ১৯৮৫ সালে।
সার্কের আঞ্চলিক কেন্দ্র: বর্তমানে সার্কের আঞ্চলিক কেন্দ্র পাঁচটি। খরচ কমাতে ২০১৪ সালের নভেম্বরে সার্কের ৪৯ তম প্রোগ্রামিং কমিটির বৈঠকে সার্কের ১১টি কেন্দ্র এর মধ্যে ছয়টি কেন্দ্র সম্পূর্ণভাবে বন্ধ করার জন্য সুপারিশ করা হলে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে ছয়টি কেন্দ্র বন্ধ হয়ে যায়।
সার্কের বর্তমান পাঁচটি আঞ্চলিক কেন্দ্র হলো:
কেন্দ্রের নাম – সদরদপ্তর
সার্ক কৃষি কেন্দ্র – ঢাকা, বাংলাদেশ
সার্ক যক্ষ্মা ও এইডস কেন্দ্র – কাঠমান্ড, নেপাল
সার্ক জ্বালানি ও পরিবেশ কেন্দ্র – ইসলামাবাদ, পাকিস্তান
সার্ক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কেন্দ্র – নয়াদিল্লি, ভারত
সার্ক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র – কলম্বো, শ্রীলঙ্কা
    Similar Topics
    TopicsStatisticsLast post
    0 Replies 
    126 Views
    by tamim
    0 Replies 
    109 Views
    by raja
    0 Replies 
    116 Views
    by mousumi
    0 Replies 
    671 Views
    by kajol
    0 Replies 
    628 Views
    by raihan

    লজিস্টিক, এডমিন (সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং), এটিসি/ মিটি[…]

    ৯০ BAFA কোর্সে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীতে অফিসার ক্যা[…]

    ১.মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কোন প্রেসিডেন্ট প্রথম আতত[…]

    সর্বশেষ সরকারি বিধি ও বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ([…]