Let's Discuss!

সাধারণ জ্ঞান বিষয়ক বিস্তারিত তথ্য
#3467
সভার্টিফস অসাধারণ সৌন্দর্যমন্ডিত কালো জলপ্রপাত
দক্ষিণ আইসল্যান্ডের ভটনাজকূল জাতীয় পার্কের অংশ স্কাফটাফেল পার্কে অবস্থিত সাভার্টিফস আইসল্যান্ডের অসাধারণ জলপ্রপাত গুলোর মধ্যে একটি। এ নামটির শাব্দিক অর্থ ‘ব্ল্যাক ওয়াটারফল। এটি ইউরোপের সবচেয়ে বড় হিমবাহ। সরু এবং অত্যন্ত সুন্দর এ জলপ্রপাতটিতে নদী থেকে বয়ে আসা বরফ গলা সাদা পানি ষড়ভুজাকার কালো ব্যালেটের বুকে প্রায় ২০ মিটার ওপর দিয়ে নিচে পতিত হয়। আগ্নেয়গিরির লাভা হতে সৃষ্ট এ কালো ব্যাসল্টের কলামে কাঠামো আইসল্যান্ডের কয়েকটি স্থানে দেখা যায়, তবে এর মধ্যে কালো সমুদ্র সৈকত রেইনসফিয়ারার গুহা সবচেয়ে বিখ্যাত। এছাড়াও উত্তর আয়ারল্যান্ডের জায়ান্টস কজওয়ে ও স্কটল্যান্ডের স্টাফা দ্বীপেও এ কাঠামো দেখা যায়।এ জলপ্রপাতের চারদিকে সবুজের সমারোহ ভুর্জ এবং রোয়ান গাছে ঘেরা যা অসংখ্য বন্যপ্রাণী ও পাখির আবাস্থল। এখানকার মনোরম দৃশ্য সকলকে বিশেষ ভাবে আকর্ষণ করে।
অ্যান্টিবায়োটিক জীবনকে করেছে সাবলীল ও দীর্ঘ
অ্যান্টিবায়োটিক হলো কয়েক ধরণের জৈব-রাসায়নিক ঔষধ, যা অনুজীব বিশেষ করে ব্যাকটেরিয়া নাশ বা বৃদ্ধিরোধ করে। সাধারণত এক অ্যান্টিবায়োটিক এক ধরণের প্রক্রিয়য়ি নির্দিষ্ট এক এক প্রক্রিয়ায় নির্দিষ্ট অনুজীবের বিরূদ্ধে কাজ করে। সাধারণত বিভিন্ন ব্যাকটেরিয়া ও ছত্রাক দ্বারা অ্যান্টিবায়োটিক তৈরি করা হয়। প্রাচীন মানুষ জীবাণুমুক্ত জন্য অ্যান্টিবায়োটিকের মতো প্রাকৃতিক অনুজীবের ব্যবহার জনত। প্রাচীন চীন, মিশর , গ্রীস ও রোম থেকে শিক্ষা নিয়ে অনেক সভ্যতা রোগ নিরাময়ে ছত্রাক ব্যবহার করত। প্রাচীন চীনে সয়াবিনের ছত্রাক দিয়ে বিভিন্ন ফোড়ার চিকিৎসা করা হতো। তারা পায়ের ক্ষত সারাতেও এক ধরণের ছত্রাক আবৃত পাদুকা পড়ত। পরবর্তীতে বিজ্ঞানের উৎকর্সে যুগে যুগে নানা অ্যান্টিবায়োটিক আবিষ্কারে রক্ষা পায় হাজার মানুষের জীবন। তবে জীবনরক্ষাকারী এ ওষধের অপব্যবহার হুমকির মুখে ঠেলে দিচ্ছে মানবসভ্যতাকে। তাই জীবাণুর আক্রমণ থেকে বাডচিয়ে দীর্ঘজীবন দানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালনকারী এ অ্যান্টিবায়োটিক এর যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিত করা জরুরি।
কাম্পিয়ান সাগর কিন্তু সাগর নয়
এশিয়া ও ইউরোপের মাঝে অবস্থিত কাম্পিয়ান সাগর পৃথিবীর বৃহত্তম ভূবেষ্টিত জলাশয়। এর উত্তরে রয়েছে কাজাখস্তান, দক্ষিণে ইরান, ও আজারবাইন। কাম্পিয়ানকে সাগর বলা হলেও এটি আসলে সাগর নয় বিশ্বের সর্ববৃহৎ হ্রদ। এর আয়তন ৩,৭১,০০০ বর্গ কিমি। যা একটি সম্পূর্ণ সাগরের সমান। ইতিহাসবিদদের মতে, রোমানরা যখন প্রথম এ সাগরের দক্ষিণাঞ্চলে আসে তখন এর পানি তাদের কাছে লবণাক্ত লেগেছিল বলে তারা এটিকে সাগর বলে অভিহিত করে। এর সর্বোচ্চ গভীরতা ১,০২৫ মিটার এবং পানির লবনাক্তের পরিমাণ ১.২ শতাংশ। ভলগা নদী এবং উড়াল নদী থেকে প্রচুর পরিমাণ স্বাদু পানি এ সাগরে পতিত হলেও এর মধ্যবর্তী ও দক্ষিণ অংশের পানি লবণাক্ত। এখানে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ পাওয়া যায়। যার ডিম থেকেই ক্যাভিয়ার নামক সুস্বাদু খাবার তৈরি করা হয়। এছাড়াও ক্যাম্পিয়ান সাগরের আশেপাশে বেশ কয়েকটি গ্যাসক্ষেত্র এবং তেলের খনি রয়েছে। যা একে অর্থনৈতিকভাবেও করেছে অনেক গুরুত্বপূর্ণ।
বরফ পানিতে ভাসে কেন?
-কোন বস্তুর ঘনত্ব পানির ঘনত্বের চেয়ে কম হলেই বস্তুটি পানিতে ভাসে। বরফের ঘনত্ব পানির চেয়ে কম হওয়ায় তা পানিতে ভাসে। উল্লেখ্য সাধারণত কঠিন অবস্থায় যেকোনো বস্তুর ঘনত্ব সবচেয়ে বেশি হলেও পানির ঘনত্ব ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াসে সর্বোচ্চ।
    Similar Topics
    TopicsStatisticsLast post
    0 Replies 
    337 Views
    by romen
    জানা অজানা:
    by masum    - in: সাধারণ জ্ঞান
    0 Replies 
    305 Views
    by masum
    0 Replies 
    469 Views
    by shahan
    0 Replies 
    266 Views
    by Islammahabul47
    0 Replies 
    245 Views
    by masum

    ১. ডিজিটাল প্রতারণার সাজা ৫ বছর বা ৫ লক্ষ বা উভয় […]

    ১. বিশ্বে চার ধরনের অর্থনৈতিক ব্যবস্থা চালু রয়েছে[…]

    ১. ব্রিটিশ আমলে বাংলাদেশের প্রথম শিক্ষা কমিশন গঠিত[…]

    যদি স্বাধীনতা বলতে কিছু বোঝায়, তবে এর অর্থ লোকেরা[…]