Let's Discuss!

সাধারণ জ্ঞান বিষয়ক বিস্তারিত তথ্য
#3180
উপজাতিদের উৎসব
উপজাতি – উৎসবের নাম
ত্রিপুরা – বৈসুক (বর্ষবরণ)
মারমা – সাংগ্রাই (বর্ষবরণ)
চাকমা – বিঝু (বর্ষবরণ), ফাল্গুণী পূর্ণিমা (ধর্মীয়)
গারো – ওয়ানগালা (ধর্মীয়)
রাখাইন – সান্দ্রে, জলকেলি
মুরং – ছিয়াছত
খিয়াং – সাংলান
সাঁওতাল – সোহরাই, ঝুমুর গান
-বৈসাবি: উপজাতিদের বর্ষবরণ অনুষ্ঠানকে সামগ্রীকভাবে বৈসাবি বলে।
বৈসাবি=বৈসুক+সাংগ্রাই+বিজুর সংক্ষিপ্ত রুপ
-কঠিন চীবর দান: কঠিন চীবর দান বৌদ্ধদের একটি ধর্মীয় আচার এবং উৎসব। বান্দরবনের রাজবন বিহারকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশে এটি পালিত হয়।
উপজাতিদের সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান
প্রতিষ্ঠান – অবস্থান
ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী সাংস্কৃতিক একাডেমি – নেত্রকোণা [বাংলাদেশে প্রতিষ্ঠিত প্রথম উপজাতীয় সাংস্কৃতিক কেন্দ্র প্রতিষ্ঠাকাল ১৯৭৭]
মণিপুরি ললিতকলা একাডেমি – মৌলভীবাজার
রাখাইন সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট – কক্সবাজার
-উপজাতিদের মোট উল্লেখযোগ্য সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান ৮ টি।
উপজাতিদের ভাষা
উপজাতি – ভাষা
ত্রিপুরা – ককবরক
সাঁওতাল – সাঁওতালি
ওঁরাও – কুরুখ / শাদইর
গারো – মান্দি
    Similar Topics
    TopicsStatisticsLast post
    0 Replies 
    363 Views
    by mousumi
    0 Replies 
    284 Views
    by Jakiyasoc14
    0 Replies 
    242 Views
    by Jakiyasoc14
    0 Replies 
    210 Views
    by Jakiyasoc14
    0 Replies 
    170 Views
    by Jakiyasoc14

    ১. ডিজিটাল প্রতারণার সাজা ৫ বছর বা ৫ লক্ষ বা উভয় […]

    ১. বিশ্বে চার ধরনের অর্থনৈতিক ব্যবস্থা চালু রয়েছে[…]

    ১. ব্রিটিশ আমলে বাংলাদেশের প্রথম শিক্ষা কমিশন গঠিত[…]

    যদি স্বাধীনতা বলতে কিছু বোঝায়, তবে এর অর্থ লোকেরা[…]