Let's Discuss!

সাধারণ জ্ঞান বিষয়ক বিস্তারিত তথ্য
#2057
ভারত সফরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রণে ৩-৬ অক্টোবর ২০১৯ ভারত সফর করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সফরকালে তিনি ৩-৪ অক্টোবর ২০১৯ ভারতের নয়াদিল্লিতে অনুষ্ঠিত বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের (WEF) ভারতীয় অর্থনৈতিক সম্মেলনে অংশগ্রহণ করেন। ৪ অক্টোবর ২০১৯ তিনি ভারতীয় অর্থনৈতিক সম্মেলনে বক্তব্য দেন। এরপর ৫ অক্টোবর ২০১৯ নয়াদিল্লির হায়দরাবাদ হাউজে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সাথে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন শেখ হাসিনা। বৈঠক শেষে উভয় দেশের প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতিতে একটি চুক্তি, চারটি সমঝোতা স্মারক (MoU) ও একটি Standard Operating Procedure (SOP) স্বাক্ষরিত হয় এবং একটি চুক্তি নবায়ন করা হয়। এছাড়াও তিনটি যৌথ প্রকল্প উদ্ধোধন করা হয়। এরপর উভয় দেশের মধ্যে ৫৩ দফা যৌথ বিবৃতি প্রকাশিত হয়।

চুক্তি
ভারত থেকে নেয়া ঋণ চুক্তি (Line of Credit-LOC) বাস্তবায়ন বিষয়ক।

MoU
 ত্রিপুরায় সাবরুম শহরে পানীয়জল সরবরাহ প্রকল্পে ফেনী নদী থেকে ১.৮২ কিউসেক পানি প্রত্যাহার বিষয়ক।

 হায়দরাবাদ বিশ্ববিদ্যালয় এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সহযোগিতা বিনিময় বিষয়ক।

 যুব উন্নয়নে পারস্পরিক সহযোগিতা বিষয়ক।

 সমুদ্র উপকূলে সার্বক্ষণিক মনিটরিং ব্যবস্থা (Coastal Surveillance System-CSS) বিষয়ক।


SOP

 ভারতের পণ্য পরিবহনে চট্রগ্রাম ও মোংলা বন্দর ব্যবহারবিষয়ক চুক্তি সম্পর্কিত।

নবায়ন
 বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে সাংস্কৃতিক বিনিময় কর্মসূচি বিষয়ক চুক্তি।

৩ যৌথ প্রকল্প উদ্ধোধন
চুক্তি ও সমঝোতাপত্র স্বাক্ষরের পর শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদি যৌথভাবে তিনটি প্রকল্প উদ্ধোধন করেন।
এগুলো হলো-
 খুলনায় ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্সে ‘বাংলাদেশ-ভারত প্রফেশনাল স্কিল ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউট’।
 ঢাকার রামকৃষ্ণ মিশনে বিবেকানন্দ ভবন।
 বাংলাদেশ থেকে ত্রিপুরায় এলপিজি রপ্তানি প্রকল্প।

টেগোর পিস অ্যাওয়ার্ড লাভ
সাংস্কৃতিক সম্প্রীতির জন্য নোবেল বিজয়ী রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সার্ধশত জন্মবার্ষিকী স্মরণে ভারতের এশিয়াটিক সোসাইটি ২০১২ সালে প্রবর্তন করে ‘টেগোর পিস অ্যাওয়ার্ড’। সাংস্কৃতিক সম্প্রীতির মূল্যবোধ প্রচারের ক্ষেত্রে অসামান্য অবদানের জন্য ব্যক্তি, সমিতি, প্রতিষ্ঠানকে এ পুরস্কার দেয়া হয়। টেগোর পিস অ্যাওয়ার্ড মনোনয়নের ক্ষেত্রে মনোনীতের সাধারণত পূর্ববর্তী ১০ বছর সময়কালের অবদানগুলো বিবেচনা করা হয়।
দুর্নীতি ও দারিদ্র্য বিমোচনে অবদান রাখায় ’টেগোর পিস অ্যাওয়ার্ড ২০১৮’ লাভ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ৫ অক্টোবর ২০১৯ ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে তার হাতে এ পুরস্কার তুলে দেয়া হয়।
Similar Topics
Topics Statistics Last post
0 Replies 
221 Views
by awal
Thu Nov 28, 2019 6:53 pm
0 Replies 
1076 Views
by raihan
Tue Sep 17, 2019 11:11 pm
0 Replies 
936 Views
by apple
Wed Sep 25, 2019 12:39 am
0 Replies 
170 Views
by raihan
Thu Dec 05, 2019 11:37 am
0 Replies 
205 Views
by rafique
Wed Oct 09, 2019 6:04 pm

সরকারী ব্যাংকের রিসেন্ট পরীক্ষাগুলোর আলোকে বিশ্লেষ[…]

জাতিসংঘের বিশেষ সংস্থা: পর্ব ১ বিশ্বব্যাংক (WB - W[…]

Bangabandhu Sheikh Mujibur Rahman

Bangabandhu Sheikh Mujibur Rahman The founding lea[…]