Let's Discuss!

খেলাধুলা বিষয়ক সাধারণ জ্ঞান
#7021
দর্শক ধারণক্ষমতায় বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রিকেট স্টেডিয়াম বর্তমানে ভাররে আহমেদাবাদে অবস্থিত ‘নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়াম’, যার পূর্বনাম ‘সর্দার বল্লভভাই প্যাটেল স্টেডিয়াম’ । এটি ‘মোতেরা স্টেডিয়াম’ নামেও পরিচিত ছিল । স্টেডিয়ামটির দর্শক ধারণক্ষমতা ১,১০,০০০ । এর আগে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রিকেট স্টেডিয়াম ছিল অস্ট্রেলিয়ার ‘মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ড’,যার দর্শকধারণ ক্ষমতা ছিল ৯০,০০০ । ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ভারত-ইংল্যান্ড মধ্যকার টেস্ট ম্যাচ দিয়ে যাত্রা শুরু করে বিশ্বের সর্ববৃহৎ ক্রিকেট স্টেডিয়ামটি । ঐদিনই এর নামকরণ করা হয় ‘নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়াম’ । এর আগে ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ স্টেডিয়ামটি উদ্বোধন করেন সদ্য সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি । (নরেন্দ্র মোদি ভারতের সপ্তম ব্যক্তি, যিনি বেঁচে থাকাকালীন সময়েই তার নামে কোনো ক্রিকেট স্টেডিয়ামের নামকরণ করা হয়)
শোয়েব আখতারের নামে স্টেডিয়াম
সম্প্রতি পাকিস্তানের রাওয়ালপিন্ডিতে অবস্থিত খান রিসার্চ ল্যাবরেটরি (KRI) স্টেডিয়ামের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয় শোয়েব আখতার ক্রিকেট স্টেডিয়াম। ৮,০০০ দর্শক ধারণক্ষমতার স্টেডিয়ামটিতে পাকিস্তানের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট অনুষ্ঠিত হয়। তবে ক্রিকেটের চেয়ে ফুটবলে এই মাঠ বেশি ব্যবহার হয়। গতিময় বোলিংয়ের জন্য ‘পিন্ডি এক্সপ্রেস’ নামে খ্যাত শোয়েবের জন্ম রাওয়ালপিন্ডিতে। ১৯৯৭-২০১১ পর্যন্ত পাকিস্তানের হয়ে তিন ফরম্যাটের ২২৪টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেন ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে দ্রুতগতির পেসার শোয়েব আখতার। উইকেট নেয়ার এবং অধিক গতিতে বলিংয়ের জন্য বিশেষ পরিচিতি গড়ে ওঠে তার। ২০০৩ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার কেপটাউনের নিউল্যান্ডসে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বিশ্বকাপ ম্যাচে ইতিহাসের সবচেয়ে দ্রুতিগতির ডেলিভারিটি করেছিলেন শোয়েব। তার বলের গতি রেকর্ড হয় ১৬১.৩ কিলোমিটার/ঘন্টা বা ১০০.২ মাইল/ঘণ্টা। এখন পর্যন্ত সেই রেকর্ড ভাঙতে পারেননি কেউ।
    Similar Topics

    -১২ মার্চ ২০২১ জরুরি ভিত্তিতে ব্যবহারের জন্য জনসন […]

    ফাইজপার ও মডার্নার পর যুক্তরাষ্ট্রের করেনারার তৃতী[…]

    -যুক্তরাষ্ট্রে পুলিশ হেফাজতে মারা যাওয়া কৃষ্ণাঙ্গ[…]

    -সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নিষেধ[…]