Try bdQuiz for Free!

চাকরি প্রর্থীদের সমস্যা, প্রশ্ন, মতামত এবং বিভিন্ন পেশা সর্ম্পকে আলোচনা, অভিজ্ঞতা ও পরামর্শ
#1265
অভিজিৎ বসাক
বিসিএস(প্রশাসন)
৩৩তম বিসিএস

বিসিএস পরীক্ষার প্রথম চ্যালেঞ্জ হলো প্রিলিমিনারি পরীক্ষা। আসলে এটি শুধু প্রথম চ্যালেঞ্জ না, সবথেকে বড় চ্যালেঞ্জও। কারণ এই প্রথম ধাপেই সবথেকে বেশি প্রার্থী বাদ যায়। প্রিলিমিনারি পরীক্ষার খুটিনাটিসহ প্রত্যেকটি বিষয়কে ধরে ধরে পড়তে পারলে প্রস্তুতি সহজ হয়ে যাবে। প্রিলিমিনারি পরীক্ষার অন্যতম চ্যালেঞ্জ হলো, আপনাকে কম সময়ের মধ্যে প্রচুর তথ্য মাথায় রাখতে হবে। কিন্তু আপনি যদি একটু টেকনিক অবলম্বন করে, সঠিক পরিকল্পনা করে পড়াশুনা করেন, তাহলে খুব অল্প সময়েই ভাল মার্ক পাওয়া সম্ভব।

এজন্য নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করুন-

• প্রথমে BPSC’র ওয়েবসাইট থেকে প্রিলিমিনারি পরীক্ষার বিস্তারিত সিলেবাসটি ডাউনলোড করে ফেলুন এবং ভালোভাবে বুঝার চেষ্টা করুন।

• এবার কোন বই থেকে কোন অংশটুকু শিখবেন সিলেবাস দেখে দেখে সেটা মার্ক করে ফেলুন।

• এবার একটি কাগজে ঐ বইগুলোর পৃষ্ঠা নম্বর সহ লিখে ফেলুন।প্রিলি পরীক্ষার জন্য বিস্তারিত নোট করার প্রয়োজন নেই।এতে অনেক সময় নষ্ট হবে।

• এরপর বিগত বছরের প্রশ্নগুলো ভালমতো দেখে নিতে হবে। এতে প্রশ্নের ধরণ সম্পর্কে আপনার ভাল একটি ধারণা তৈরি হয়ে যাবে।

• বিগত বছরের প্রশ্নগুলো লক্ষ্য করলে দেখবেন- কিছু গুরুত্বপূর্ণ ও কমন টপিক থেকে নিয়মিত প্রশ্ন করা হয়। এবার টপিকের গুরুত্ব অনুসারে পুরো সিলেবাসটিকে তিন চারটি ভাগে ভাগ করে ফেলুন।

• প্রথমেই গুরুত্বপূর্ণ ও কমন টপিকগুলো দিয়ে শুরু করবেন। এই টপিকগুলো ভালমত শেষ হলে দ্বিতীয়ভাগের টপিকগুলো পড়া শুরু করবেন। এভাবে ধাপে ধাপে পড়তে হবে।

• হালকাভাবে কোন অনেক টপিক শিখবেন না। কারণ এতে পরীক্ষার হলে গিয়ে দ্বিধা-দ্বন্দ্বের মধ্যে পড়তে হয়। তাই যেটুকু শিখবেন কিন্তু বিস্তারিত ও ভালমতো শিখবেন।

• পড়াশুনা নিয়ে মাথায় চাপ নেবেন না। আপনাকে যেসব বিষয় নিয়ে প্রশ্ন করা হবে তার বেশিরভাগই আপনি স্কুল কলেজ লেভেলে শিখে এসেছেন। এবার শুধু ঝালাই করে নিতে হবে।

. বেশি বেশি লেখার অভ্যাস করুন।এতে মনে রাখতে সুবিধা হবে।

. নিয়মিত পড়ালেখার অভ্যাস গড়ে তুলুন। প্রতিদিন কতটুকু সময় কোন বিষয় পড়বেন তা রুটিন আকারে লিখে রাখুন।

আজ এ পর্যন্তই থাক। আগামী লেখায় কোন বইগুলো থেকে পড়লে প্রস্তুতি যথাযথ হবে তা নিয়ে আলোচনা করব। সবাই ভাল থাকবেন।


“Be not afraid of life. Believe that life is worth living, and your belief will help create the fact.” - William James

বি দ্রঃ লেখাটাতে শুধু আমার নিজের আইডিয়া অনুযায়ী ধারণা দেয়া হয়েছে। আপনি আপনার মত করেও প্রস্তুতি নিতে পারেন। সফল হবার জন্য যে প্রস্তুতি দরকার, সেটা সম্পন্ন করাটাই মুখ্য কাজ।আর ছোটখাটো বা অনিচ্ছাকৃত কোনও ভুল থাকলে ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন দয়া করে।
    Similar Topics
    TopicsStatisticsLast post
    0 Replies 
    545 Views
    by shahan
    0 Replies 
    700 Views
    by rafique
    0 Replies 
    511 Views
    by kajol
    0 Replies 
    386 Views
    by rahmatulla011
    0 Replies 
    916 Views
    by rana

    প্রাচীন বাংলার সীমা উত্তরে: হিমালয় পর্বত, নেপাল, […]

    ১৯৭১ এ বাংলাদেশ পশ্চিম পাকিস্তান থেকে স্বাধীনতা লা[…]

    চাকরি পাওয়া বর্তমান সময়ের সবচেয়ে কঠিন কাজগুলোর […]

    পড়াশোনার শেষ ধাপে এসে সবাই চিন্তিত হয়ে পড়েন ক্য[…]

    bdQuiz খেলতে খেলতে নিজের প্রস্তুতি পরীক্ষা করুন