Try bdQuiz for Free!

চাকরি প্রর্থীদের সমস্যা, প্রশ্ন, মতামত এবং বিভিন্ন পেশা সর্ম্পকে আলোচনা, অভিজ্ঞতা ও পরামর্শ
#845
👉টপিকঃ- পরিক্ষার তারিখ, সিস্টেম ও নিয়মাবলী
✔পুরো পোস্টটা পড়ে মন্তব্য করুন।

আমরা অনেকেই প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরিক্ষার দুটি সম্ভাব্য তারিখ জেনেছি। প্রথমটা ১৯ অক্টোবর আর পরেরটা ২৬ অক্টোবর। গত পরিক্ষার মতোই কয়েকটি ভাগে ভাগ হয়ে এবারও পরিক্ষার কার্যক্রম হবে। তারিখের ব্যাপারটা ছিলো সম্ভাব্য তাই সত্যতা যাচাই করা উচিত। সরকার প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ সংক্রান্ত সকল আপডেট তথ্যের জন্য ওয়েব সাইট খোলে দিয়েছেন। এই সাইটে পরিক্ষা ও প্রাথমিক শিক্ষার সকল তথ্য বিস্তারিত দেওয়া থাকে। 👉http://www.dpe.gov.bd/ যদি এই সাইটের সাথে অমিল কোন তথ্য পান তাহলে সেগুলো এড়িয়ে যাবেন। উক্ত সাইটে পরিক্ষার সময়সূচি নিয়ে নতুন কোন আপডেট প্রকাশ করেনি। তাছাড়া পরিক্ষার সিস্টেম সম্পর্কে অনেকেই মনগড়া তথ্য দিয়ে সবাইকে বিভ্রান্ত করতেছে। পরিক্ষা MCQ 'র সাথে রিটেন হবে এমন কোন তথ্য সরকার কর্তৃক এখনো প্রকাশ করেনি। যদি এই নীতিমালা এখনো প্রনীত না হয় তাহলে অবশ্যই পূর্বের নিয়মে পরিক্ষা হবে। পুরো সাইটটি ঘাটলে আপনারা আরো বিস্তারিত জানতে পারবেন। প্রবেশ পত্র ডাউনলোড অপশনেও ২০১৪ সালের পুরনো পেইজ সচল আছে। পরিক্ষার প্রায় ১ মাস আগে এই সাইটে নোটিশ দিয়ে সবাইকে আপডেট নিউজ জানিয়ে দেওয়া হয়।
তাই বিভ্রান্তিকর নিউজ থেকে দূরে থাকুন।

খেয়াল করবেন ফেসবুকে ★ব্রেকিং নিউজ/আপডেট নিউজ দিয়ে অনেকেই প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পদ্ধতির ব্যাপক পরিবর্তন আনা হয়েছে এবং তারা নিজেরাই মনগড়া সিস্টেম বানিয়ে প্রচার করে যাচ্ছে। এতে অনেকেই বিভ্রান্ত হয়ে পড়াশুনায় আগ্রহ হারাচ্ছে। এই তথ্যগুলোর আদৌকি কোন সূত্র অথবা সত্যতা আছে? এতে করে কার লাভ/ক্ষতি হচ্ছে সে ব্যাপারটাও জানা দরকার। অনেকেই বিভিন্ন ব্লগ সাইটে এসব নিউজ পোস্ট করে লিংক ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়। এতে তাদের লাভ কারণ ব্লগ সাইটে যত ভিজিটর ভিজিট করবে তাদের তত ইনকাম হবে। কেউ নতুন নিয়মের ব্যাপারে পোস্ট করলে আপনি সেই নিয়ম সম্পর্কে জানতে কৌতুলী হবেন ঠিকই কিন্তু পড়াশুনার আগ্রহটা হারিয়ে ফেলবেন। পরিক্ষা যে নিয়মেই হোক যে তারিখেই হোক আপনাকে এক্সামের প্রস্তুতি নিতেই হবে। এসব দিক না ভেবে নিজেকে প্রস্তুত করুন, সফলতা আসবে। পরিক্ষার নিয়ম, তারিখ ও পদ্ধতির এসব তথ্যের জন্য সরকারি সাইটের নোটিশ ও সিদ্ধান্তের উপর নির্ভর করুন। সরকারি সূত্র ব্যাতিত অন্যের কথার সত্যতা যাচাই করুন।

👉প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরিক্ষার জন্য সহজে সিলেবাস শেষ ও কি পড়লে কমন আসবে তা পূর্বে আলোচনা করেছি। আমার টাইমলাইনে বিস্তারিত পারেন। তবুও আজ আবার শেয়ার করলাম।

🎯যারা প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরিক্ষায় আবেদন করেছেন তাদের সবারই কমন একটা সমস্যা থাকে তা হল কিভাবে পড়া শুরু করবো আর কোন গাইড ফলো করবো। আজ সকল প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবেন। এই পরিক্ষার সিলেবাস হল বাংলা (ব্যাকরণ + সাহিত্য), ইংরেজি (গ্রামার + অন্যান্য ), গণিত (বীজ + পাটি + জ্যামিতি), সাধারণ জ্ঞান (বাংলাদেশ + আর্ন্তজাতিক + খেলাধুলা + ইতিহাস) এই বিষয় গুলো ভালো ভাবে আয়ত্ব করলেই আপনার প্রস্তুতি মোটামুটি পাকা হয়ে যাবে।

★কিভাবে পড়বেন:- বাংলা ব্যাকরণ এর জন্য অধ্যাপক নিরঞ্জন অধিকারী স্যারের 'উচ্চতর বাংলা ব্যাকরণ ও রচনা' এই বইয়ের ব্যাকরণ অংশটা কয়েকবার ভালো ভাবে পড়বেন। সাথে ৮ম ও ৯ম শ্রেণির ব্যাকরণ বোর্ড বইটা দেখতে হবে। বিশেষ করে সমাস, সন্ধি, কারক ও বিভক্তি, এক কথায় প্রকাশ, সমার্থক শব্দ এই গুলো থেকে প্রশ্ন আসবেই। ক্লাস ৬-১১ শ্রেণির বাংলা বোর্ড বইয়ের সকল কবি পরিচিতি আর গল্প/কবিতার উৎস, পটভূমি কোন কবিতা কোন ছন্দে রচিত এসব কয়েকবার করে রিভিশন করবেন। তবে মূল গল্পটা ভালো ভাবে মার্কিং করে পড়লে আরো ভালো হয়।
ইংলিশের জন্য একটু বেশি শ্রম দিতে হবে। ভালো ইংলিশ গ্রামার বইয়ের গ্রামারের সকল নিয়ম খুঁটিনাটি ও ব্যাতিক্রম অংশগুলো জানতে হবে। বিশেষকরে Sentence, Parts of Speech, Tense, Voice, Narration, Gender, synonym, antonym ইত্যাদি বেশি গুরুত্ব দিতে হবে। আর কিছু বাক্য অনুবাদ পড়তে হবে। প্রশ্ন এনালাইসিস করলে দেখা যায় বেশ কিছু প্রশ্ন ঘুরে ফিরে বার বার আসে তাই পূর্বের প্রশ্নের ধারা অনুযায়ী পড়তে হবে।

গণিতে খুবই মনযোগী ও পাকা হতে হবে। যাদের গণিতে ভয় আছে তারা আমাকে ইনবক্সে নক দিতে পারেন। বিগত প্রশ্নগুলোতে দেখা যায় নির্দিষ্ট কিছু অধ্যায়ের গণিত প্রশ্নপত্রে আসে। আপনারা ৪র্থ থেকে ৯ম শ্রেণিত গনিত বই সংগ্রহে রাখবেন। এটা সকল চাকুরির জন্য জরুরি। বিশেষ করে পাটি গণিত লাভ-ক্ষতি, সুদ-কষা, পিতা-পুত্র,মাতা-কণ্যা, অনুপাত, ঐকিক নিয়ম, সংখ্যার ধারণা, ল.সা.গু, গ.সা.গু., ভগ্নাংশ, গড়, সময়+গতিবেগ, দূরত্ব, ধারা ও মানসিক দক্ষতা থেকে প্রশ্ন আসে। বীজ গণিত বীজগাণিতীয় রাশি (যোগ, বিয়োগ, গুণ, ভাগ), সূত্রের প্রয়োগ ও সূত্রাবলীর প্রমাণ, সরল সমীকরণ, উৎপাদকে বিশ্লেষণ, মান নির্ণয় থেকে প্রশ্ন আসে। জ্যামিতিতে ত্রিভুজ, চতুর্ভুজ, রম্বস, সামন্তরিক, বৃত্ত ও জ্যামিতিক বিষয়ের খুঁটিনাটি থেকে প্রশ্ন আসে। তাই এই নির্দিষ্ট অধ্যায়ের অংক গুলো করলে কমন পাওয়া যাবে। আরো সুবিধা হল বইয়ের অংকগুলো হুবুহু আসে আর খুব কম সময়েই দেখা গেছে সংখ্যা পরিবর্তন করে আসতে। সেইক্ষেত্রে নিয়মগুলো আয়ত্তে থাকলে সমস্যা হবেনা। সাথে উদাহরণ এর অংক গুলোও দেখতে পারেন।

সাধারণ জ্ঞানের জন্য ভালো একটা বই সংগ্রহ করতে হবে। আজকের বিশ্ব, নতুন বিশ্ব, জ্ঞান সিন্ধু, মেডি জ্ঞান কোষ এগুলোর যে কোন বই কিনে নিবেন সাথে প্রতি মাসের কারেন্ট ওয়ার্ল্ড ও দেশ বিদেশের সাম্প্রতিক তথ্যগুলো জানা থাকতে হবে। সাম্প্রতিক তথ্যের জন্য আমার টাইমলাইনে চোখ রাখতে পারেন। দেশের মুদ্রা ও রাজধানী, প্রণালী, দেশ-বিদেশের নদী, খাল, বিখ্যাত স্থান, স্থাপনা, বৃহত্তম, ক্ষুদ্রতম, বন্দর, জলপ্রপাত, ঐতিহাসিক স্থান, ইতিহাস জড়িত ঘটনাবলী, আবিষ্কার, পুরুস্কার, বিখ্যাত ব্যাক্তিদের কর্ম, অবদান, ও তাদের জীবনের সাথে জড়িয়ে থাকা সাল এসব থেকেই প্রশ্ন আসে।

অন্যান্য টপিকের অংশ থেকে বিশেষ করে প্রযুক্তি বিষয়ক প্রশ্ন আসে। তাই কম্পিউটার শিক্ষা বইটা সংগ্রহ করতে পারেন। প্রযুক্তি বিষয় তথ্যগুলো পড়তে হবে।

Raisul Islam Hridoy
    Similar Topics
    TopicsStatisticsLast post
    0 Replies 
    825 Views
    by sajib
    0 Replies 
    633 Views
    by tumpa
    0 Replies 
    680 Views
    by tumpa
    0 Replies 
    566 Views
    by bdchakriDesk
    0 Replies 
    636 Views
    by bdchakriDesk

    প্রাচীন বাংলার সীমা উত্তরে: হিমালয় পর্বত, নেপাল, […]

    ১৯৭১ এ বাংলাদেশ পশ্চিম পাকিস্তান থেকে স্বাধীনতা লা[…]

    চাকরি পাওয়া বর্তমান সময়ের সবচেয়ে কঠিন কাজগুলোর […]

    পড়াশোনার শেষ ধাপে এসে সবাই চিন্তিত হয়ে পড়েন ক্য[…]

    bdQuiz খেলতে খেলতে নিজের প্রস্তুতি পরীক্ষা করুন