ইংরেজি সাহিত্য বিষয়ক আলোচনা
By shihab
#2235
The Old English Period
Duration: 450-1066
এ যুগ সম্পর্কিত কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য:
এ যুগের অন্য নাম The Anglo Saxon Period; (Saxon জার্মানির একটি উপজাতি)। অর্থাৎ 450-1066 সাল পর্যন্ত জার্মানির Saxon, Angles এবং Jetes সহ বিভিন্ন দুর্ধর্ষ জাতিগোষ্ঠীর লোকেরা England কে দখলে রেখেছিল।
ইংরেজদের উৎপত্তি:
ইংরেজ হল একটি জাতির নাম যারা ইংল্যান্ডে বাস করে। প্রাক-মধ্যযুগে ইংরেজ জাতির উত্তরণ হয়। পুরাতন ইংরেজিতে তাদেরকে Angelcynn হিসাবে বলা হয়েছে যার অর্থ ‘এ্যাঙ্গেলদের পরিবার’। শব্দটি এসেছে একটি প্রাচীন জার্মান এ্যাঙ্গেল জাতির নাম থেকে যারা ৫ম শতকে জার্মানি থেকে ইংল্যান্ডে অভিবাসন নিয়েছিল। ইংল্যান্ড যুক্তরাজ্যের একটি দেশ। ঐতিহাসিকভাবে, ইংরেজরা বেশ কয়েকটি জাতির উত্তরসূরী। যাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিল, এ্যাঙ্গেল, স্যাক্সন, জুট এবং ফ্রিসিয়ান। সম্মিলিতভাবে তাদেরকে এ্যাংলো-স্যাক্সন বলা হয়। প্রথমে এই এ্যাংলো-স্যাক্সন জাতি ও পরে নরম্যান, ডেন ও অন্যান্যরা মিলে ইংল্যান্ড (প্রাচীন ইংরেজিতে ইংলাল্যান্ড) প্রতিষ্ঠা করে। ইউনিয়ন এ্যাক্ট ১৭০৭ অনুসারে, ব্রিটিশ রাজত্ব গ্রেট ব্রিটেন কর্তৃক অধিকৃত হয়। কালক্রমে ইংরেজ সংস্কৃতি গ্রেট ব্রিটেনের সাংস্কৃতির সাথে একিভূত হয়ে যায়। ইংরেজরা পৃথিবীতে ইংরেজি ভাষা, ওয়েস্ট মিনিস্টার পদ্ধতি, সাধারণ আইন, বিভিন্ন জনপ্রিয় খেলা- ক্রিকেট, ফুটবল, রাগবি লীগ ইত্যাদি প্রচলন করে।
(Actually English is a West-Germanic Language.)
প্রাচীন ইংরেজি সাহিত্য:
প্রাচীন ইংরেজি সাহিত্য বা অ্যাংলো-স্যাক্সন সাহিত্য বলতে অ্যাংলো-স্যাক্সন ইংল্যান্ডে প্রাচীন ইংরেজি ভাষায় লেখা সাহিত্যকে বোঝায়। এই সাহিত্যের সময়কাল ছিল খ্রিষ্টীয় সপ্তম শতাব্দী থেকে ১০৬৬ খ্রিঃ নর্মানদের ইংল্যান্ড বিজয়ের পরবর্তী কয়েকটি দশক পর্যন্ত। সপ্তম শতাব্দীতে রচিত ক্যাডমনের স্তোত্র হল ইংরেজি ভাষায় রচিত প্রাচীনতম কবিতা। প্রাচীন ইংরেজি সাহিত্যের সবচেয়ে বিখ্যাত কাজ হল বেওউল্ফ নামক একটি কবিতা। ঐতিহাসিক গবেষণার ক্ষেত্রে অ্যাংলো-স্যাক্সন ক্রনিকল বইটি বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। এটিতে ইংল্যান্ডের ইতিহাসের প্রথম পর্বের সময়ানুগ একটি ধারাবিবরণী আছে। অ্যাংলো স্যাক্সন যুগে লেখা অনেকগুরো পাণ্ডুলিপি উদ্ধার করা গেছে, যার বেশিরভাগেরই রচনাকাল প্রাচীন।
Anglo Saxon Periond এর কিছু গুরুত্বপূর্ণ সাহিত্যিক:
1 . Caedmon: (ক্যাডমন)
• ক্যাডমনকে ইংরেজি সাহিত্যের আদিকবি বলা হয়। তিনি খ্রিষ্টীয় ভাবধারার কবি ছিলেন।
• Earliest poet/ first known poet in English Literature
• তাকে Father of English Sacred Song বলা হয়।
• তার প্রধান সাহিত্যকর্মের নাম Paraphrase ।
2 . Cynewulf: (কেনেউলফ)
• He is one of twelve Old English poets known by name, and one of four whose work is known to survive today.
• Juliana তার একটি বিখ্যাত কবিতা।

3. Saint Venerable Bede: (673-735)
• তার উপাধি: Doctor of the Church/ Father of Learning
• তাকে First historian in English language বলা হয়। (বি.দ্র: বাংলা সাহিত্যের প্রথম ইতিহাস বিষয়ক গ্রন্থ দীনেশ চন্দ্র সেনের বঙ্গভাষা ও সাহিত্য)
4 . King Alfred the Great: (849-899)
• তার উপাধি: The Law Governing (আইনের শাসক)
• তিনি ৮৭১ সাল থেকে ৮৯৯ সাল পর্যন্ত তৎকালীন ইংল্যান্ডের রাজা ছিলেন।
• He compiled the Anglo Saxon Chronicle. (অর্থাৎ Anglo Saxon Chronicle নামে প্রথম গদ্যগ্রন্থ এ যুগেই সংকলিত হয়।)
• এটিকে First monument in English prose বা ইংরেজি গদ্যের আদি নিদর্শন বলা হয়। (বাংলা সাহিত্যের প্রথম গদ্য: কৃপার শাস্ত্রের অর্থভেদ)
• এ কারণে তাকে Founder of English Prose-ও বলা হয়। (যেমন: বাংলা গদ্যের জনক ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর)
• King Alfred the Great spread educational institutions in this period.

Note: জার্মানির দুর্ধর্ষ Saxon-রা ৪৫০ সালে শুধু ইংল্যান্ড দখলই করেননি বরং ইংরেজি ভাষা চর্চার উপর এক ধরনের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। তারা দরিদ্র ইংরেজদেরকে দাস-দাসীতে পরিণত করে এবং সম্ভ্রান্ত ইংরেজদেরকে দেশ থেকে বিতাড়িত করে। ফলে এ যুগে বিশুদ্ধ ইংরেজি ভাষায় কোন সাহিত্য রচিত হয়নি।

ইংরেজি সাহিত্যের আদি নিদর্শন:
1 . Beowulf (বেওউলফ):
• এই মহাকাব্যের রচয়িতা কোন এক অজ্ঞাতনামা অ্যাংলো স্যাক্সন কবি। এটিকে ইংরেজি সাহিত্যের আদি নিদর্শন, তথা First Monument in English Literature বলা হয় । [যেমন: বাংলায় চর্যাপদ]
• এটিকে The Earliest Epic (মহাকাব্য) in England-ও বলা হয়ে থাকে। সম্ভবত ৬৫০ সালে রচিত হয়েছিল।
• বিনোদনের জন্য রচিত এ কাব্যটি স্ক্যান্ডিনেভিয়া অঞ্চলের পটভূমিতে রচিত হলেও ইংল্যান্ডের জাতীয় মহাকাব্যের স্বীকৃতি পায়। এটিকে ইংরেজি সাহিত্যের প্রথাগত ইতিহাসের প্রথম গুরুত্বপূর্ণ নমুনার মর্যাদা দেওয়া হয়।
• প্রাচীন ইংরেজী ভাষায় লিখিত এই Heroic Epic টিতে ৩১৮২ টি লাইন ছিল। মহাকাব্যের নায়কের নাম হল Beowulf, যিনি England কে প্রথমে (যৌবনে) পাতালপুরীর রাক্ষসদের হাত থেকে রক্ষা করেছিলেন। পরে (শেষ বয়সে) ড্রাগনদের হাত থেকে রক্ষা করতে গিয়ে নিজে মারা যান। এই গ্রন্থের মূল পাণ্ডলিপি লন্ডনের ব্রিটিশ মিউজিয়ামে সংরক্ষিত আছে।
2 . Beowulf ছাড়াও The Wanderer, The Seafarer, The Husband’s Message, The Wife’s Lament, Traveler প্রভৃতি নামে কিছু গুরুত্বপূর্ণ কবিতা পাওয়া যায়। এগুলোর সুনির্দিষ্ট কোন লেখকের নাম পাওয়া যায় না।
Similar Topics
Topics Statistics Last post
0 Replies 
456 Views
by shohag
Tue Oct 15, 2019 8:53 am
0 Replies 
583 Views
by shohag
Tue Oct 15, 2019 11:34 pm
Preferred Book List For English
by shohag  - Sun Jun 16, 2019 1:17 pm  - in: সহায়ক বই
0 Replies 
445 Views
by shohag
Sun Jun 16, 2019 1:17 pm
0 Replies 
585 Views
by rajib
Sat Jul 13, 2019 1:23 am
0 Replies 
566 Views
by shohag
Wed Jul 17, 2019 1:59 am

বিভিন্ন দেশের বর্তমান প্রধান যারা যুক্তরাষ্ট্রের প[…]

নোবেল পুরস্কার - ২০১৯ বিষয় - বিজয়ীর নাম ও দেশ - […]

বাংলাদেশ অর্থনৈতিক সমীক্ষা- ২০১৯ মোট জনসংখ্যা - […]

৪১তম বিসিএস প্রিলিমিনারি মডেল টেস্ট - ০2: পার্ট ০2[…]

মোবাইল থেকে বিডিচাকরি খুব সহজে ব্যবহার করার জন্য