Let's Discuss!

দৈনন্দিন বিজ্ঞান বিষয়ক সাধারণ জ্ঞান
#7000
১. শ্বেতসার বা স্টার্চের প্রধান উৎস - ধান, গম, ভুট্টা।
২. যে চারটি মৌলের সমন্বয়ে আমিষ তৈরি হয় - কার্বন, হাইড্রোজেন, অক্সিজেন এবং নাইট্রোজেন।
৩. অপরিহার্য অ্যামাইনো অ্যাসিড - ৮টি।
৪. স্নেহ পদার্থ - দুই প্রকার; প্রাণিজ, উদ্ভিজ্জ।
৫. B12 - এর উৎস - যকৃৎ, দুধ, মাছ, মাংস, ডিম, পনির, বৃক্ক।
৬. মানবদেহের বৃদ্ধি ঘটে - ২০ থেকে ২৪ বছর পর্যন্ত।
৭. এইডসের প্রকোপ বেশি দেখা যায় - আফ্রিকার দেশগুলোতে।
৮. পানির ঘনত্ব সবচেয়ে বেশি - ৪° সেলসিয়াস তাপমাত্রায়।
৯. জলজ প্রাণীদের বেঁচে থাকার জন্য ১ লিটার পানিতে অক্সিজেন থাকা প্রয়োজন - কমপক্ষে ৫ মিলিগ্রাম।
১০. ক্যারোলাস লিনিয়াস - সুইডেনের প্রকৃতি বিজ্ঞানী।
১১. ফ্যাটি অ্যাসিডের পরিসর - C14 থেকে C36।
১২. জীব ও জড় বস্তুর মধ্যবর্তী পর্যায়ের কোনো একটি কিছু - ভাইরাস।
১৩. স্পষ্ট দৃষ্টির ন্যূনতম দূরত্ব - ২৫ সে. মি.।
১৪. অক্ষিগোলকের ব্যাসার্ধ বৃদ্ধি পেলে - হ্রস্ব দৃষ্টি বা ক্ষীণদৃষ্টি।
১৫. দীর্ঘদৃষ্টি বা দূরদৃষ্টি দূর করার জন্য ব্যবহার করা হয় - উত্তল লেন্সের চশমা।
১৬. নাইলনকে প্রধানত দুই শ্রেণিতে ভাগ করা যায় - নাইলন ৬৬ এবং নাইলন ৬।
১৭. নাইলন, পলিয়েস্টার, পলি প্রোপিলিন, ডেক্রন যে ধরনের তন্তু - নন সেলুলোজিক কৃত্রিম তন্তু।
১৮. কোকুন - রেশম পোকা থেকে তৈরিকৃত এক ধরনের গুটি।
১৯. বোরহানি বা দই খেলে হজমে সহায়তা করে এতে বিদ্যমান - ল্যাকটিক অ্যাসিড।
২০. সার হিসেবে ব্যবহার করা হয়- অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট, অ্যামোনিয়াম সালফেট, ও অ্যামোনিয়াম ফসফেট।
২১. সার কারখানায় সার তৈরিতে ব্যবহৃত হয় নাইট্রিক অ্যাসিড এবং ফসফরিক অ্যাসিড।
২২. ফিটকিরির সংকেত K2SO4.Al2(SO4)3.24H2O
২৩. টেস্টিং সল্ট নামে পরিচিত - সোডিয়াম গ্লুটামেট।
২৪. দপিন তীব্রতার একক - ক্যান্ডেলা।
২৫. মৌলিক রাশি - ৭টি।
২৬. উদ্ভিদের বৃদ্ধি নির্ণায়ক যন্ত্র - ক্রোস্কোগ্রাফ।
২৭. 1 ক্যালরি সমান - 4.2 জুল।
২৮. বিদ্যুৎকে মানুষের কল্যাণে কাজে লাগাতে অবদান সবচেয়ে বেশি - টমাস আলভা এডিসনের।
২৯. Nuclear Reactor -এ গতি মন্থরক হিসেবে ব্যবহৃত হয় - ক্যাডমিয়াম বা বোরন দণ্ড বা গ্রাফাইট।
৩০. পরম শূন্য তাপমাত্রায় গ্যাসের আয়তন - শূন্য।
৩১. মহাশূন্য থেকে পৃথিবীতে আগত রশ্মিকে বলে - কসমিক রশ্মি।
৩২. Carbor-14 পরমাণুর আইসোটোপের অর্ধায়ু - 5568 বছর।
৩৩. শুষ্ক বরফ বলা হয় - হিমায়িত কার্বন ডাইঅক্সাইডকে।
৩৪. অ্যাসিড বৃষ্টি হয় বাতাসে - সালফার ডাইঅক্সাইডের কারণে।
৩৫. মরিচার সংকেত - Fe2O22H2O (সোদক ফেরিক অক্সাইড)।
    Similar Topics
    TopicsStatisticsLast post
    0 Replies 
    378 Views
    by rekha
    0 Replies 
    366 Views
    by Prosenjeet3416
    0 Replies 
    520 Views
    by Bappytalukdar96
    0 Replies 
    603 Views
    by kajol
    0 Replies 
    229 Views
    by brifat50

    -১২ মার্চ ২০২১ জরুরি ভিত্তিতে ব্যবহারের জন্য জনসন […]

    ফাইজপার ও মডার্নার পর যুক্তরাষ্ট্রের করেনারার তৃতী[…]

    -যুক্তরাষ্ট্রে পুলিশ হেফাজতে মারা যাওয়া কৃষ্ণাঙ্গ[…]

    -সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নিষেধ[…]