Let's Discuss!

বাংলাদেশ বিষয়ক সাধারণ জ্ঞান
#7130
LDC থেকে উত্তরণে সুযোগ-সুবিধা ও চ্যালেঞ্জসমূহ
স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে বের হলে বাংলাদেশের কিছু বাণিজ্য ও অন্যান্য সুবিধা স্বয়ংক্রিয়ভাবে বাতিল হয়ে যাবে । তবে কিছু সুবিধাও মিলবে । আবার কিছু অর্জন করতে হবে ।
সুযোগ-সুবিধা
বাংলাদেশের স্বল্পোন্নত দেশ হতে উত্তরণের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দিক হলো এটি দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি - যা সরকারের সঠিক পদক্ষেপ , নীতি ও কৌশলে ফলে সম্ভবনা তৈরি হবে :
-উত্তরণের ফলে সরকার ও জনগণের আত্মবিশ্বাস ও আত্মমর্যাদাবোধের বিকাশ ঘটবে । ফলে জনগণ অনুপ্রাণিত হয় - যা উন্নয়নের উচ্চ স্তরে পৌঁছাতে সহয়তা করে ।
-উত্তরণের পর বহির্বশ্বে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হবে - যা বৈদেশিক বিনিয়োগ ও ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসারে সহায়ক ভূমিক রাখবে ।
-উত্তরণ পরবর্তী দেশের ক্রেডিট রেটিং , উৎপাদনশীলতা এবং বৈদেশিক বাণিজ্যে প্রতিযোগিতা সক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে - যা রপ্তানি আয় বৃদ্ধিতে সহায়তা করবে।
-দেশের বৈদেশিক বিনিয়োগ বৃদ্ধির সম্ভাবনা তৈরি হবে - যার ফলে দেশে অবকাঠামোর ব্যাপক উন্নয়ন ঘটবে , কর্মসংস্থান তৈরি হবে এবং মানুষের জীনমানের উন্নতি হবে ।
-স্বল্পোন্নত দেশ হিসাবে প্রাপ্ত সুবিধাদির অবর্তমানে রপ্তানি বহুমুখীকরণেল এক ধরনের বাধ্যবাধকাতার তৈরি হবে - ফলে নতুন রপ্তানি পণ্য ও বাজারের সৃষ্টি হবে ।
-পণ্য সরবরাহ চেইন সুসংহত হবে এবং উচ্চ মূল্যমান ও উচ্চ মূল্য সংযোজিত পণ্য উৎপাদনে উৎসাহ এবং বাধ্যাধকতা তৈরি হবে ।
-দক্ষ জনশক্তির ব্যাপক চাহিদা বৃদ্ধির ফলে চতুর্থ শিল্প বিপ্লব উপযোগী শ্রমশক্তি তৈরির সুযোগ সৃষ্টি হবে ।
-গুরুত্বপূর্ণ অংশীজন - উন্নয়ন ওবাণিজ্য সহযোগী , বেসরকারি খাত , সুশীল সমাজসহ সকলকে নিয়ে একটি অভিন্ন ও অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়ন কৌশল বাস্তবায়নের মাধ্যম দেশকে এগিয়ে নেয়া সম্ভব হবে ।

    জাতীয় অধ্যাপক বাংলাদেশের বিশেষ রাষ্ট্রীয় সম্মানন[…]

    ১. মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশের বন্ধুপ্রতিমরাষ্ট্র ছিল […]

    ১. কলম্বিয়া দেশটি কোন মহাদেশে অবস্থিত ?দক্ষিণ আমে[…]

    ১. বাংলাদেশ প্রথম কোন আন্তর্জাতিক সংস্থার সদস্যপদ […]