Let's Discuss!

বাংলাদেশ বিষয়ক সাধারণ জ্ঞান
#3201
৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের (NEC) সভায় বন্যা, নদী ভাঙন, নদী ব্যবস্থাপনা, নগর ও গ্রামে পানি সরবরাহ, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা এবং বন্যা নিয়ন্ত্রণ ও নিষ্কাশন ব্যবস্থাপনার জন্য অন্তত শত বছরকে সামনে রেখে দীর্ঘমেয়াদি কৌশল হিসেবে ‘বাংলাদেশ ডেল্টা প্ল্যান-২১০০’ অনুমোদিত হয়। এর অধীনে আপাতত ২০৩০ সালের মধ্যে বাস্তবায়নের জন্য অন্তত ৮০টি প্রকল্প গ্রহণ করবে সরকার। জলবায়ু পরিবর্তনজনিত দীর্ঘমেয়াদি চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় শতবর্ষী এ পরিকল্পনা নেয় সরকার। এতে পৃথিবীর সর্ববৃহৎ বদ্বীপ বাংলাদেশকে সহযোগিতা করছে বিশ্বের আরেক বদ্বীপ দেশ নেদারল্যান্ডস।
’বদ্বীপ পরিকল্পনা ২১০০’ নামে পরিচিত ‘বাংলাদেশ ডেল্টা প্ল্যান-২১০০’ বাস্তবায়নে প্রয়োজনীয় পরামর্শ ও দিক-নির্দেশনা প্রদানের জন্য ২৯ জুন ২০২০ গঠন করা হয় ‘ডেল্টা গভর্ন্যান্স কাউন্সিল’। ১ জুলাই ২০২০ মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে চেয়ারম্যান, পরিকল্পনা মন্ত্রীকে ভাইস-চেয়ারম্যান ও পরকল্পনা কমিশনের সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের (GED) সদস্যকে সদস্য সচিব এবং ৯টি মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীদের সদস্য করে ১২ সদস্যবিশিষ্ট এ কাউন্সিল গঠনের প্রজ্ঞাপন জারি করে।

ভার্চুয়াল আদালতের যাত্রা শুরু
করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে ২৬ মার্চ ২০২০ থেকে আদালতের স্বাভাবিক কার্যক্রম বন্ধ। এমন পরিস্থিতিতে ২৬ এপ্রিল ২০২০ ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সুপ্রিম কোর্টসহ দেশের সব আদালত চালু রাখার সিদ্ধান্ত নেয় প্রধান বিচারপতিসহ অন্যান্য বিচারপতিদের সমন্বয়ে অনুষ্ঠিত সুপ্রিমকোর্টের ফুল কোর্ট সভা। এছাড়া ফুল কোর্ট সভায় একটি অধ্যাদেশ জারির মাধ্যমে ভার্চুয়াল আদালত চালু করতে রাষ্ট্রপতিকে অনুরোধ জানানোর সিদ্ধান্ত হয়। এ অবস্থায় ৭মে ২০২০ মন্ত্রিসভার বৈঠকে ‘আদালত কর্তৃক তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার অধ্যাদেশ, ২০২০’ এর খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হয়। ৯ মে ২০২০ ভার্চুয়াল আদালত সম্পর্কিত ‘আদালত কর্তৃক তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার অধ্যাদেশ, ২০২০’ জারি করা হয়। এরপর বিশেষ সময় প্রয়োজন অনুসারে ভার্চুয়াল আদালত পরিচালনার সুযোগ রেখে ৮ জুলাই ২০২০ জাতীয় সংসদে পাস হয় ‘আদালত কর্তৃক তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার বিল ২০২০’।আর এর মাধ্যমে ভার্চুয়াল আদালত যুগে প্রবেশ করে বাংলাদেশ।

মন্ত্রিসভার প্রথম ভার্চুয়াল বৈঠক
দেশের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম হলো মন্ত্রিসভা। সাধারণত প্রতি সোমবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় কিংবা সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।ভ
করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ পরিস্থিতির মধ্যে ১৩ জুলাই ২০২০ দেশের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হয় ভার্চুয়াল মন্ত্রিসভার বৈঠক। মন্ত্রিসভার এ বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হন, যেখানে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এবং মুখ্য সচিব আহমেদ কায়কাউসও উপস্থিত ছিলেন। অন্যদিকে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব ছাড়াও সাতজন মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী এবং সচিব যুক্ত ছিলেন।
    Similar Topics
    TopicsStatisticsLast post
    0 Replies 
    418 Views
    by bdchakriDesk
    0 Replies 
    184 Views
    by bdchakriDesk
    0 Replies 
    777 Views
    by Jakiyasoc14
    0 Replies 
    330 Views
    by Jakiyasoc14
    0 Replies 
    611 Views
    by Riponkundu27

    কাতারে ন্যূনতম মাসিক মজুরি ২৩,০০০ টাকা আইন পরিবর্[…]

    কাফালা প্রথা বাতিল সৌদি আরবে ৭০ বছর ধরে বিদেশি শ্[…]

    ঢাকা-জলপাইগুড়ি যাত্রীবাহী ট্রেন বাংলাদেশের স্বাধী[…]

    স্বাধীনতা সড়ক চালু ১৭ এপ্রিল ১৯৭১ বাংলাদেশের প্র[…]