Let's Discuss!

বিষয় ভিত্তিক প্রস্তুতি : বাংলদেশ ও বিশ্ব, দৈনন্দিন বিজ্ঞান এবং সাম্প্রতিক ঘটনাবলি
#763
মুক্তিযোদ্ধা ও খেতাব প্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা
==============================
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বাধীনতার ঘোষনা শুনে ১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ থেকে ১৬ ডিসেম্বর যে সকল ব্যক্তি দেশের জন্য কাজ করেছেন তারাই মুক্তিযোদ্ধা।

মুক্তিযোদ্ধা হওয়ার জন্য কিছু বৈশিষ্ট্য নির্ধারণ করে সরকার। তন্মধ্যে একটি হলো মুক্তিযুদ্ধকালীন বয়স ১৩ বছর হতে হবে।

মোট খেতাব প্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা (৬৭৬+১) =৬৭৭
বীরশ্রেষ্ঠ = ৭ জন
বীর উত্তম (৬৮+১) = ৬৯ (সর্বশেষ= ব্রিগেডিয়ার জামিল উদ্দীন)
বীর বিক্রম = ১৭৫
বীর প্রতীক = ৪২৬ (মহিলা=২, নিখোজ= ৫৫। কিন্তু দেবদাস বিশ্বাস ওরফে খোকা বিশ্বাস বীর প্রতীক নামে ঝালকাঠির এক ব্যক্তিকে সনাক্ত করেন বিমল কান্তি দে। তাই বর্তমানে নিখোঁজ সংখ্যা হবে ৫৪)

মুক্তিযুদ্ধে বীরত্বের জন্য বীর উত্তম খেতাবপ্রাপ্ত 68 জন। কিন্তু মোট বীর উত্তম খেতাবপ্রাপ্তের সংখ্যা 69 জন। 2010 সালে 75 এর অভ্যুত্থানের সময় বঙ্গবন্ধুকে রক্ষা করতে গিয়ে শহীদ হওয়া ব্রিগেডিয়ার জামিলকে বীর উত্তম খেতাব দেয়া হয়। এছাড়া পার্বত্য চট্টগ্রামে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে বীরত্বপূর্ণ ভূমিকার জন্য লেফটেন্যান্ট জেনারেল চৌধুরী হাসান সোহরাওয়ার্দী ও ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোজাফ্ফর আহমেদ কে বীর বিক্রম খেতাব দেয়া হয়।
তাই মুক্তিযুদ্ধে 175 জন বীর বিক্রম খেতাব পেলেও মোট বীর বিক্রম খেতাবপ্রাপ্ত 177 জন।পার্বত্য চট্টগ্রামে বীরত্বপূর্ণ ভূমিকার জন্য বীর বিক্রম খেতাবপ্রাপ্ত 2 জনসহ মোট বীর বিক্রম খেতাবপ্রাপ্ত 177 জন। তবে মুক্তিযুদ্ধে বীরত্বপূর্ণ ভূমিকার জন্য বীর বিক্রম খেতাবপ্রাপ্ত 175 জন।

নারী মুক্তিযোদ্ধা- ২ জন (২ জনই বীরপ্রতীক) (সেতারা বেগম ও তারামন বিবি)
নারী মুক্তিযোদ্ধা- সেতারা বেগম, তারামন বিবি ও কাঁকন বিবি
আদিবাসী নারী মুক্তিযোদ্ধা-কাঁকন বিবি
কাঁকন বিবি- খাসিয়া
কাঁকন বিবির আসল নাম- কাকাত হেনইঞ্চিতা
সর্বকনিষ্ঠখেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা-শহীদুল ইসলাম চৌধুরী (মুক্তিযুদ্ধের
সময় তাঁর বয়স-১২ বছর)
একমাত্র আদিবাসী/উপজাতি খেতাবপ্রাপ্ত
মুক্তিযোদ্ধা- ইউ কে চিং (বীরবিক্রম)
একমাত্র বিদেশি বীরপ্রতীক-ডব্লিউ এ এস ওডারল্যান্ড(অস্ট্রেলিয়া; জন্ম নেদারল্যান্ড)ওডারল্যান্ড মারা যান- ১৮ মে ২০০১ সালে
===========
ছয় দফা সম্পর্কিতঃ
====================
৫ ফেব্রুয়ারি ১৯৬৬- লাহোরে বিরোধী দলসমুহের জাতীয় সম্মেলনে বঙ্গবন্ধু কর্তৃক ছয় দফা পেশ।
২৩ মার্চ- ছয় দফার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা।
৭ জুন- ঐতিহাসিক ছয় দফা দিবস। কারণ 7 জুন ছয় দফা দাবিতে মনু নিয়া সহ ১১ জন শহীদ হন। তাই ৭ জুন ছয় দফা দাবি দিবস।
5 February দাবি পেশ, 8 May মুজিবকে গ্রেফতার করে, 7 Jun কিশোর মনু মিয়া সহ ১১ জন শহীদ হন।।।।।
.ছয় দফা দাবি- >
বাঙালি জাতির মুক্তির সনদ । ব্রিটিশ শাসনতন্ত্রের বাইবেলের সাথে তুলনা করা হয় ।

৭মার্চের ভাষণ
------
১৯৭১ সারের ৭ মার্চ রেসকোর্স ময়দানে এক বিশাল জনসভায় বঙ্গবন্ধুর ভাষনের বিষয়বস্তু ছিল নিন্মোক্ত
ক.চলমান সামরিক আইন পত্যাহার
খ. সৈন্যদের ব্যারাকে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া
গ. গণহত্যার তদন্ত করা
ঘ. নির্বাচিত প্রতিনিধিদের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করা।

৭মার্চের বঙ্গবন্ধুর ভাষণকে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ওয়াশিংটনের গেটিসবার্গ অ্যাড্রেসের সাথে তুলনা করা হয় । এটি ৪৩টি ভাষায় অনুবাদের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয় ।
আন্তর্জাতিকভাবে বিশ্বসেরার তালিকায় স্থান করে নিয়েছে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ।

ইংরেজিতে অনুদিত ভাষণের বইটির নাম ‘উই শ্যাল ফাইট অন দ্য বিচেস’- দ্য স্পিচেস দ্যাট ইন্সপায়ার্ড হিস্টরি [we shall figth on the beaches: the speeches that inspired history]’।
বইটির সঙ্কলক - জ্যাকব এফ ফিল্ড। খৃস্টপূর্ব ৪৩১ সাল থেকে ১৯৮৭ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত সেরাভাষণ নিয়ে ২২৩ পৃষ্ঠার বই এটি।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধকালে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী স্যার উইনস্টন চার্চিলের ভাষণ থেকে নেয়া শিরোনামের এই সঙ্কলন গ্রন্থের শেষ ভাষণটি যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট রোনাল্ড রেগ্যানের ‘টিয়ারস ডাউন ওয়াল’।

বইটির ২০১ পৃষ্ঠায় ‘দ্য স্ট্রাগল দিস টাইম ইজ ট্য স্ট্রাগল ফর ইন্ডিপেন্ডেন্স’ শিরোনামে স্থান পেয়েছে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ।
==============
বিদেশের মিশনে প্রথম বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন করা হয়- কলকাতায়
বাংলাদেশের বিরোধীতা করে- মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও চীন
বাংলাদেশকে সহায়তা করে>> রাশিয়া .
ভারত-বাংলাদেশ যৌথবাহিনী গঠন- ২১ নভেম্বর ১৯৭১
ভারত-বাংলাদেশ মিত্রবাহিনীর প্রধান- ফিল্ড মার্শাল স্যাম মানেকশ

ঊনসত্তরের_গণঅভ্যুত্থান
---------------------------------------------
প্রথম শহীদ >> আসাদ (ঢা.বি) ২০জানুয়ারী
২য় শহীদ >> মতিউর (স্কুল ছাত্র) ২৪জানু
৩য় শহীদ >> সার্জেন্ট জহুরুল হক (১৫ ফেব্রু)
৪র্থ শহীদ >> ড. শামসুচ্ছজোহা ১৮ ফেব্রু

মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতা লাভ

১) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান ছয় দফা কর্মসুচী ব্যক্ত করেন -- ১৩ ফেব্রুয়ারী ১৯৬৬ সালে।
২) আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলা দায়ের করা হয় -- জানুয়ারী, ১৯৬৮।
৩/ আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার বিশেষ আদালতের বিচারক ছিলেন -- পাকিস্তানের প্রধান বিচারপতি এস.এ. রহমান।
৪/ আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার বিচার হয় -- জুন, ১৯৬৮।
৫/ আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার আসামী ছিল -- ৩৫ জন।
৬/ আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার প্রধান আসামী ছিলেন -- শেখ মুজিবর রহমান।
৭/ আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলা প্রত্যাহার করা হয় -- ২২ ফেব্রুয়ারী ১৯৬৯।
৮/ আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার আসামী সার্জেন্ট জহুরুল হককে হত্যা করে -- ১৫ ফেব্রুয়ারী ১৯৬৯।
৯/ আইয়ুব খান পদত্যাগ করতে বাধ্য হয় -- ২৫ মার্চ, ১৯৬৯ সালে। রাজনৈতিক সংকটের জন্য।
১০/ পুলিশের গুলিতে শহীদ আসাদ নিহত হন -- ২০ জানুয়ারী, ১৯৬৯।
১১/ শহীদ আসাদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোন বিভাগের ছাত্র ছিলেন -- আইন বিভাগের।
১২/ পুলিশের গুলিতে শহীদ মতিউর নিহত হন -- ২৪ জানুয়ারী, ১৯৬৯।
১৩/ শহীদ মতিউর কোন বিদ্যালয়ের ছাত্র ছিলেন -- নবকুমার ইনষ্টিটিউশনের, নবম শ্রেনীর ছাত্র।
১৪/ শহীদ ড. শামসুজ্জোহা হত্যা করা হয়েছিল -- ১৮ ফেব্রুয়ারী, ১৯৬৯, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গনে।
১৫/ আইয়ুব খান কবে কার নিকট পাকিস্তানের ক্ষমতা হস্তান্তর করেন -- ২৫ মার্চ, ১৯৬৯। আগা মুহম্মদ ইয়াহিয়া খান।
১৬/ শেখ মুজিবর রহমানকে বঙ্গবন্ধুকে উপাধিতে ভুষিত করা হয় -- ১৯৬৯ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারী।
১৭/ শেখ মুজিবর রহমানকে জাতির জনক ঘোষনা দেয়া হয় -- ০৩ মার্চ ১৯৭১।
১৮/ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানকে প্রথমে জাতির পিতা ঘোষনা দেন -- আ.স.ম আবদুর রব।
১৯/ ১৯৭০ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ জাতীয় পরিষদের আসন পেয়েছিল -- ১৬৭ টি আসন।
২০/ পাকিস্তানের প্রথম সাধারন নির্বাচন কবে অনুষ্ঠিত হয় – ০৭ ডিসেম্বর, ১৯৭০সাল।
২১/ আলোচনা ভেঙ্গে দিয়ে ইয়াহিয়া খান ঢাকা ত্যাগ করেন -- ২৫ মার্চ, ১৯৭১ রাতে।
২২/ স্বাধীনতার ইশতেহার পাঠ করা হয় -- ০৩ মার্চ, ১৯৭১, পল্টন ময়দানে।
২৩/ চট্টগ্রাম বেতার কেন্দ্র থেকে স্বাধীনতা ঘোষনা পাঠ করা হয় -- ২৬ মার্চ, ১৯৭১।
২৪/ স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র স্থাপন করা হয় -- চট্টগ্রামের কালুরঘাটে, ২৬ মার্চ, ১৯৭১।
২৫/ মুক্তিযুদ্ধে প্রথম সশস্ত্র প্রতিরোধ গড়ে তোলেন যারা -- ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্ট।
২৬/ মুক্তিযুদ্ধে প্রথম সশস্ত্র প্রতিরোধ সংগঠিত হয় -- ১৯ মার্চ, ১৯৭১ গাজিপুরে।
২৭/ স্বাধীনতা সংগ্রামের সর্বাধিনায়ক ছিলেন -- বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।
২৮/ প্রথম বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন করা হয় -- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রসভায়।
২৯/ প্রথম কবে বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন করা হয় -- ০২ ই মার্চ, ১৯৭১।
৩০/ বাংলাদেশের পতাকা প্রথম উত্তোলন করেন -- আ স ম আব্দুর রব।
৩১/ শেখ মজিবুর রহমানকে প্রেফতার করে পশ্চিম পাকিস্তানে নিয়ে যায় -- ২৫ মার্চ, ১৯৭১ মধ্যরাতে।
৩২/ সর্বপ্রথম বাংলাদেশের স্বাধীনতা মন্ত্রিসভা গঠিত হয় -- ১০ এপ্রিল, ১৯৭১।
৩৩/ বাংলাদেশের প্রথম অস্থায়ী সরকার গঠিত হয়েছিল -- ১০ এপ্রিল, ১৯৭১।
৩৪/ বাংলাদেশকে প্রজাতন্ত্র ঘোষনা করা হয়েছিল -- ১৭ এপ্রিল, ১৯৭১।
৩৫) সিয়েরা লিওনে বাংলাকে ২য় রাষ্ট্রভাষা

সংগৃহিতঃ- Obujh Sonju
    Similar Topics
    TopicsStatisticsLast post
    0 Replies 
    293 Views
    by Rabeyaakther16
    0 Replies 
    335 Views
    by Rabeyaakther16
    0 Replies 
    362 Views
    by kausar
    0 Replies 
    392 Views
    by raihan
    0 Replies 
    801 Views
    by Romana

    ৬. ‘সুয়োমোটো’ রুল কী? উ: আদালত স্বপ্র[…]

    ১. রেডক্রস -পৃথিবীর সবচেয়ে বড় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন[…]

    বিশ্বে প্রথম দু’হাত-কাঁধ প্রতিস্থাপন প্রায়[…]

    বিশ্বের সবচেয়ে বড় ব্যাটারি তৈরি করছে অস্ট্রেলিয়[…]