Let's Discuss!

বিষয় ভিত্তিক প্রস্তুতি : বাংলদেশ ও বিশ্ব, দৈনন্দিন বিজ্ঞান এবং সাম্প্রতিক ঘটনাবলি
#4081
অঞ্চলের নাম – অন্তর্গত দেশসমূহ – অন্যান্য তথ্য
আরব উপদ্বীপের রাষ্ট্রসমূহ – সৌদি আরব, কুয়েত, কাতার, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ওমান, বাহরাইন, ইয়েমেন – আরব দেশগুলো তেল উৎপাদনে বিখ্যাত। অর্থকরী ফসলের মধ্যে খেজুর বিশ্বব্যাপী সমাদৃত।
বাল্টিক রাষ্ট্রসমূহ – এস্তোনিয়া, লাটভিয়া, লিথুয়ানিয়া, ফিনল্যান্ড – প্রথম বিশ্বযুদ্ধে রাশিয়ার কাছ থেকে স্বাধীনতা লাভকারী রাষ্ট্র এবং প্রথম বিশ্বযুদ্ধের অব্যাবহিত পরে স্বাধীনতা লাভকারী ফিনল্যান্ড (১৯২০)
স্ক্যান্ডিনেভিয়ান দেশসমূহ – ডেনমার্ক, নরওয়ে, সুইডেন, আইসল্যান্ড, ফিনল্যান্ড, ফ্যারো আইসল্যান্ড, গ্রিনল্যান্ড – মূলত ডেনমার্ক, নরওয়ে ও সুইডেন; স্ক্যান্ডিনেভিয়ান ভাষা ও সংস্কৃতি অধ্যুষিত অঞ্চল।
পশ্চিম ভারতীয় দ্বীপপুঞ্জ – অ্যান্টিগুয়া এন্ড বারবুড়া, বাহমা, বার্বাডোজ, কিউবা, ডোমিনিকা,ডোমিনিকা প্রজাতন্ত্র, গ্রেনাডা, হাইতি, জ্যামাইকা, সেন্ট কিটস, এন্ড নেভিস, সেন্ট লুসিয়া, সেন্ট ভিনসেন্ট, এন্ড গ্রেনাডিয়াল, ত্রিনিদাদ, ও টোবাগো – দুই আমেরিকা মহাদেশের মধ্যবর্তী ক্যারিবিয়ান সাগরে অবস্থিত দ্বীপরাষ্ট্রগুলো এই নামকরণ করেন আমেরিকার আবিষ্কারক ক্রিস্টোফার কলম্বাস। তিনি মনে করেছিলেন দ্বীপগুলো ভারতের দক্ষিণে। এই অঞ্চলে এই ১৩ টি দ্বীপরাষ্ট্র ছাড়াও ১৭ টি কলোনি বা পরাধীন উপনিবেশ আছে।
সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়ন – রাশিয়া, ইউক্রেন, কাজাখস্তান, উজবেকিস্তান, বেলারুশ, আজারবাইজান, লিথুনিয়া, কিরঘিজিস্তান, তাজিকিস্তান, আর্মেনিয়া, লাটবিয়া, তুর্কমেনিস্তান, এস্তোনিয়া – ১৯৯১ সালে ডিসেম্বরে সোভিয়েত ইউনিয়ন ভেঙ্গে ১৫টি রাষ্ট্র গঠিত হয়।
সি আই এস ভুক্ত – আর্মেনিয়া, আজারবাইজান, বেলারুশ, কাজাখস্তান, মেলদোভা, রাশিয়া, তাজিকিস্তান, তুর্কমেনিস্তান, উজবেকিস্তান, ইউক্রেন – পূর্বে জর্জিয়া সি আই এস এর সদস্য থাকলেও সম্প্রতি সদস্যপদ প্রত্যাহার করে নিয়েছে। আর ইউক্রেন শুরু থেকেই এর সাথে সংশ্লিষ্ট থাকলেও সদস্য হয়নি।
সাবেক চেকোশ্লোভাকিয়া – চেক প্রজাতন্ত্র, শ্লোভাকিয়া – ১ জানুয়ারি ১৯৯৩ সালে ভেঙ্গে চেক প্রজাতন্ত্র ও শ্লোভাকিয়া নামে দুটি রাষ্ট্রের জন্ম হয়।
সাবেক যুগোশ্লাভিয়া – সার্বিয়া, ক্রোয়েমিয়া, শ্লোভনিয়া, মন্টিনিগ্রো, বসনিয়া, মেসিডোনিয়া, কসোভো, হার্জেগোভিনা – ১৯৯২ সালে ভেঙ্গে ৪টি পৃথম প্রজাতন্ত্রের হয় – ক্রোয়েশিয়া, স্লোভেনিয়া, মেসিডোনিয়া এবং বসনিয়া এন্ড হার্জেগোভিনা। পরবর্তীতে ২০০৬ সালে চূড়ান্তভাবে যুগোশ্লাভিয়া ভেঙে যায়, সার্বিয়া ও মন্টিনিগ্রো আলাদা হয়ে গেলে ২০০৮ সালে কসোভো সার্বিয়া থেকে আলাদা হয়ে স্বাধীনতা ঘোষণা করে।
ইন্দোচীন – লাউস, কম্বোডিয়া, ভিয়েতনাম

বিভিন্ন বিখ্যাত অঞ্চল
নাম – অন্তর্ভুক্ত অঞ্চল বা দেশ – গুরুত্বপূর্ণ তথ্য
সেভেন সিস্টারস – আসাম, ত্রিপুরা, মেঘালয়, মণিপুর, মিজোরাম, অরুণাচল, নাগাল্যান্ড – ভারতের উত্তর-পূর্ব অঞ্চলের ৭টি রাজ্যকে সেভেন সিস্টার বলা হয়।
গোল্ডেন ট্রায়াঙ্গল – মায়ানমার, লাওস, ও থাইল্যান্ড সীমান্তে অবস্থিত – আফিম মাদক উৎপাদনকারী অঞ্চল।
গোল্ডেন ক্রিসেন্ট – আফগানিস্তান, পাকিস্তান, ও ইরান সীমান্তে অবস্থিত – আফিম মাদক উৎপাদনকারী অঞ্চল।
গোল্ডেন ওয়েজ – বাংলাদেশ, ভারত, ও নেপাল সীমান্তে অবস্থিত – মাদক পাচার ও চোরাচালানের জন্য বিখ্যাত।
গোল্ডেন ভিলেজ – বাংলাদেশের কুষ্টিয়া জেলার ২৬টি গ্রাম – গাঁজা উৎপাদনের জন্য বিখ্যাত অঞ্চল।
    Similar Topics
    TopicsStatisticsLast post
    0 Replies 
    259 Views
    by mousumi
    0 Replies 
    220 Views
    by mousumi
    0 Replies 
    181 Views
    by mousumi
    0 Replies 
    161 Views
    by mousumi
    0 Replies 
    166 Views
    by mousumi