Let's Discuss!

বিষয় ভিত্তিক প্রস্তুতি : বাংলদেশ ও বিশ্ব, দৈনন্দিন বিজ্ঞান এবং সাম্প্রতিক ঘটনাবলি
#3419
বিজ্ঞানীরা এমন একটি রাসায়নিক উপাদানের সন্ধান পেয়েছেন যা শস্য ধ্বংসকারী পঙ্গপালকে এক সাথে জড়ো হতে প্ররচিত করে। এটি গবেষণাগারেও কৃত্রিমভাবে প্রয়োগ করা যাবে। সুবিধাজনক স্থানে প্রয়োগ করলে তা পঙ্গপালের জন্য পরিণত হবে মৃত্যুফাঁদ। এরা রাসায়নিক উপাদানটির গন্ধ পেয়ে সেখানে জড়ো হবে এবং এদের ধ্বংস করা সহজ হবে। সম্প্রতি এ সংক্রান্ত গবেষণা নিয়ে বিজ্ঞান সাময়িকী নেচারে প্রকাশ হয়েছে। বিজ্ঞানিীদের খুজে পাওয়া রাসায়নিক উপাদানটি আসলে ফেরোমন জাতীয় পদার্থ। যা প্রাণীর আচরণ ণিয়ন্ত্রণ করে। কোনো প্রাণী যখন এ উপাদান তৈরি করে ও পরিবেশে ছড়িয়ে দেয় তার গন্ধে একই জাতের অন্য প্রজাতির প্রাণীরাও প্রভাবিত হয় এবং বিশেষ আচরণ করে। পতঙ্গের পেছনের পা থেকে এর নি:সরণ ঘটে । উপাদানটির গন্ধ ছড়িয়ে পড়ে আশেপাশের এলাকায় এবং গন্ধের প্রতি সংবেদনশীল শুঙ্গের মাধ্যমে একই জাতের অন্য পতঙ্গরা তা সহজেই শণাক্ত করতে পারে। সেই গন্ধের উৎসের দিক ছুটতে থাকে এরা । বিজ্ঞানীরা বলেছেন, এ নির্দিষ্ট গন্ধের রাসায়নিক উপাদানটি কৃত্রিমভাবে তৈরি করে নির্দিষ্ট জায়গায় প্রয়োগ করে সেখানে পঙ্গপালকে ছুটে যেতে প্রলুব্ধ করা যাবে। মৃত্যুফাদে এনে সহজেই এদের ধ্বংস করা সম্ভব হবে। সারাবিশ্বের লোকাস্টা মাইগ্রেটোরিয়ার বিচরণ এবং সবচেয়ে বেশী শস্যহানী ঘটায়। আফ্রিকার পূর্বাঞ্চলে এ জাতের পোকা ফসলের ব্যপক ক্ষতি করছে। প্রতিদিন ৩৫,০০০ মানুষের খাদ্যের সমপরিমাণ ফসলের বিনষ্ট হচ্ছে। বিশ্বব্যাংক আশঙ্কা করছে পঙ্গপালের কারণে অন্তত সাড়ে ৮০০ কেোটি ডলারের ক্ষতি হবে। এছাড়া পঙ্গপাল এর আক্রমণে ভারতের রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ ও গুজরাট, এবং পাকিস্তানের বেলুচিস্তান সিন্ধু ও পাঞ্চাব প্রদেশে অনেক ক্ষতি হয়েছে।

    ১. ডিজিটাল প্রতারণার সাজা ৫ বছর বা ৫ লক্ষ বা উভয় […]

    ১. বিশ্বে চার ধরনের অর্থনৈতিক ব্যবস্থা চালু রয়েছে[…]

    ১. ব্রিটিশ আমলে বাংলাদেশের প্রথম শিক্ষা কমিশন গঠিত[…]

    যদি স্বাধীনতা বলতে কিছু বোঝায়, তবে এর অর্থ লোকেরা[…]