Get on Google Play

বিষয় ভিত্তিক প্রস্তুতি : ইংরেজী ভাষা ও সাহিত্য
By rajib
#1700
প্রথমে শব্দার্থগুলি জেনে নিই

=================

১। Our female expatriate workers’ misery-আমাদের প্রবাসী নারী কর্মীদের দুর্দশা/দুর্গতি; দুরবস্থা;

২। end-সমাপ্ত হওয়া;

৩। wait for -প্রতীক্ষায় থাকা; অপেক্ষা করা;

৪। hear-সংবাদ পাওয়া/শোনা;

৫। returning from the Middle East-মধ্যপ্রাচ্য থেকে ফিরে আসা;

৬। recount-বলা; বিবরণ দেওয়া;

৭। good things-ভালো জিনিস/বিষয়;

৮। narrate-কাহিনী বলা; বর্ণনা দেওয়া;

৯। happy experiences-সুখকর অভিজ্ঞতা;

১০। of their stay in their workplace-তাদের কর্মস্থলে তাদের থাকার;

১১। endure-দু:খকষ্ট ভোগ করা; সহ্য করা;

১২। consistent-পূর্বাপর একই রকম;

১৩। basis-ভীত্তি; ভিত; বুনিয়াদ;

১৪। harrowing tales of torture-নির্যাতনের মর্মভেদী কাহিনী;

১৫। mistreatment -বাজে ব্যবহার; অসদাচরণ;

১৬। the house owner-বাড়ির মালিক;

১৭। without a single farthing-কোন রকম টাকা পয়সা ছাড়াই;

১৮। battered workers-আহত কর্মী;

১৯। again from Saudi Arabia-আবার সৌদি আরব থেকে;

২০। returned to Dhaka-ঢাকায় ফিরলো;

২১। with similar agonising experiences-একই যন্ত্রণাদায়ক অভিজ্ঞতা নিয়ে(অথবা সাথে);

২২। a worse state-একটা বাজে অবস্থা/খারাপ অবস্থা;

২৩। in all respects-সকল ক্ষেত্রে;

২৪। pastures-চারণভূমি;

২৫। dream-স্বপ্ন দেখা;

২৬। a better future-একটি উন্নত জীবন;

২৭। physically-শারীরিকভাবে;

২৮। traumatised-আঘাতপ্রাপ্ত;

২৯। by the brutal behaviour-বর্বর/নিষ্ঠুর আচরণের দ্বারা/মাধ্যমে;

৩০। employers-নিয়োগকর্তা; নিয়োগকারী;

৩১। without a single penny-কোন টাকা পয়সা ছাড়া;

৩২। Regrettably-দু:খজনকভাবে; দুখজনক ব্যাপার হলো;

৩৩। the rate of return from the ME-মধ্যপ্রাচ্য থেকে ফিরে আসার হার;

৩৪। tandem-একটি পরে আরেকটি;

৩৫। migrant female workers-প্রবাসী নারী কর্মী;

৩৬। The statistics-পরিসংখ্যান;

৩৭। dismal-দু:খদায়ক; বিষন্ন;

৩৮। repatriate-প্রত্যাবাসনের ব্যবস্থা করা;

৩৯। from that country-ঐ দেশ থেকে;

৪০। at least 850 female workers-কমপক্ষে ৮৫০ জন নারী শ্রমিক;

৪১। have been sent back from Saudi Arabia-সৌদি আরব থেকে ফিরে এসেছে;

৪২। 87 of them in coffins-কফিনে আসছে ৮৭জন; তাদের মধ্যে কফিনে আসছে ৮৭ জন;

৪৩। In the last three years-গত ৩ বছরে;

৪৪। The reason -কারণ;

৪৫। give a fig -মোটেো গ্রাহ্য না করা;

৪৬। a fig leaf -যৌনাঙ্গ ঢেকে রাখার সনাতন পদ্ধতি;

৪৭। hide-গোপন করা;

৪৮। inability-অক্ষমতা; অপারগতা;

৪৯। unwillingness-অনিচ্ছুকতা;

৫০। of the authorities -কর্তৃপক্ষের;

৫১। It is difficult to believe that-এটা বিশ্বাস করা কঠিন;

৫২। due to -কারণে;

৫৩। stroke-স্ট্রোক;

৫৪। committed suicide-আত্মহত্যা করা;

৫৫। compel-বাধ্য করা; বাধ্য করানো;

৫৬। take their own lives-নিজেদের জীবন নেয়া; আত্মহত্যা করা;

৫৭। many young women-অনেক যুবতী নারী;

৫৮। suffered from strokes-স্ট্রোকে ভোগে;

৫৯। We believe that-আমরা বিশ্বাস করি যে;

৬০। our government-আমাদের সরকার;

৬১। do something tangible -বাস্তব কিছু করা;

৬২। in this regard-এই বিষয়ে; এই ক্ষেত্রে;

৬৩। in safe homes-নিরাপদ আশ্রয়ে;

৬৪। demand-দাবি করা;

৬৫। these poor unfortunate women-দুর্ভাগা এসব গরীব নারীরা;

৬৬। at least -কমপক্ষে;

৬৭। get the pay-মাইনে/বেতন পাওয়া;

৬৮। the responsibility of the Saudi authorities -সৌদি কর্তৃপক্ষের/সরকারের দায়িত্ব;

৬৯। ensure-নিশ্চিত করা;

৭০। criminal-অপরাধী;

৭১। The perpetrators -অপরাধীরা;

৭২। persecute-কষ্ট দেওয়া; যন্ত্রণা দেওয়া;

৭৩। reconsider-পুনবিবেচনা করা;

৭৪। the justification of sending female workers-নারী শ্রমিকদের পাঠানোর যৌক্তিকতা;

৭৫। their lives and limbs -তাদের জীবন এবং অঙ্গপ্রত্যঙ্গ;

৭৬। safe-নিরাপদ;

৭৭। one’s monthly wage-কারো মাসিক বেতন;

৭৮। audacity-দু:সাহস; ধৃষ্টতা;

********************

By: Md Mohiuddin

*******এবার মূল সম্পাদকীয়টি পড়ি*****

Our female expatriate workers’ misery

When will it end?

**************************

We are waiting for that day to hear our female workers returning from the Middle East recounting good things and narrating happy experiences of their stay in their workplace. But for the time being we shall have to endure on a consistent basis their harrowing tales of torture, mistreatment and being thrown out by the house owner without a single farthing.

Only last Thursday another group of 18 such battered workers, again from Saudi Arabia, returned to Dhaka with similar agonising experiences. They have returned in a worse state in all respects than they had left seeking greener pastures and dreaming of a better future, physically traumatised by the brutal behaviour of their employers and without a single penny. Regrettably, the rate of return from the ME has been in tandem with the rate of migrant female workers going to this region. The statistics are dismal. Only in the month of August 110 of them were repatriated from that country. So far this year, at least 850 female workers have been sent back from Saudi Arabia, 87 of them in coffins. In the last three years, 311 female workers were repatriated dead. The reason given is a fig leaf to hide either the inability or the unwillingness of the authorities in that country to do anything about this. It is difficult to believe that they had died due to a stroke or committed suicide. Even if that be the case, what compelled them to take their own lives and how come so many young women suffered from strokes?

We believe that it is time for our government to do something tangible in this regard. Our embassy in Jeddah must do more than putting them in safe homes and later repatriate them. Why can’t we demand that these poor unfortunate women at least get the pay for the duration they had served with their employers? Should it not be the responsibility of the Saudi authorities also to ensure that? What our female workers have suffered are due to acts that are criminal. The perpetrators should be persecuted. The government should also reconsider the justification of sending female workers to such countries where their lives and limbs are not safe and where asking to be paid one’s monthly wage is considered an audacity by the employers.

    উত্তরা ১০নং সেক্টর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে আগামী ২৪[…]

    শিংলাব বালিকা দাখিল মাদরাসা, ডাকঘর: কলাপাটুয়া, উপ[…]

    রহমত আলী মিয়াজী উচ্চ বিদ্যালয়, গ্রাম: হলদিয়া, প[…]

    প্রত্যাশী রুস্তম আলী উচ্চ বিদ্যালয়, পোঃ ধানুয়া, […]